করোনা ভাই’রাসের অ্যান্ডিবটি-ভ্যাকসিন নিয়ে চলছে বিশ্বব্যাপী প্রতিযোগিতা। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কেউই শতভাগ সফল হয়নি। তবে এবার বাংলাদেশের একদল গবেষক ক’রোনা চিকিৎসায় সুখবর দিলেন।একটি বেস’রকারি মেডিকেল কলেজের একদল চিকিৎসকের এই ভাই’রাসটি নিয়ে দেড় মাস ধরে গ’বেষ’ণা চা’লিয়েছে। এখন তারা গ’বেষ’ণায় সাফল্যের দেখা পাওয়ার দাবি করেছেন।

তারা দাবি করছেন, অ্যান্টিপ্রোটোজোয়াল মেডিসিনের সিঙ্গেল ডোজের সঙ্গে অ্যান্টিবায়োটিক ডক্সিসাইক্লিন প্রয়োগে চারদিনেই কোভিড নাইন্টিন দূর হবে।

তবে গু’রুতর রো’গীদের বি’ষয়ে এখনও কোনো নিশ্চয়তা দিতে পারছেন না তারা। সম্মান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এই গ’বেষ’ণায় প্রচলিত দুটি ও’ষুধের সমন্বিত প্রয়োগে কোভিড চিকিৎসায় নতুন এই পথ খুঁজছেন তারা।

বাংলাদেশ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. তারেক আলম, এক সহযোগী চিকিৎসককে নিয়ে প্রায় দেড় মাস গ’বেষ’ণা করেন। তাদের দাবি, অ্যান্টিপ্রোটোজোয়াল মেডিসিন ইভারমেকটিনের সিঙ্গেল ডোজের সঙ্গে অ্যান্টিবায়োটিক ডক্সিসাইক্লিন প্রয়োগে ক’রোনাভা’ইরাসেে আ’ক্রান্ত রো’গীদের উপসর্গ মাত্র তিন দিনে ৫০ শতাংশ কমে যাওয়া আর চারদিনে টেস্টের রেজাল্ট নেগেটিভ আসার বিস্ময়কর সাফল্য পেয়েছেন তারা। ষাট জন রো’গীর ও’পর গ’বেষ’ণা করে এই সি’দ্ধান্তে এসেছেন তারা।

ডা. তারেক আলম আরও বলেন, যেহেতু আইসিইউ নেই, খুব বেশি খা’রাপ রো’গীদের আমরা ভর্তি করিনি, সেক্ষেত্রে তাদের ও’পর কেমন প্রভাব ফেলবে তা বলা কঠিন।

এদিকে এমন গ’বেষ’ণাকে স্বাগত জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, প’র্যাপ্ত পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে এই গ’বেষ’ণা সঠিক প্রমাণ হলে তা গাইডলাইনে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

তবে এমন গ’বেষ’ণাকে স্বাগত জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, বি’ষয়টি যাচাইয়ে কাজ করছেন তারা। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত স’চিব হাবিবুর রহমান বলেন, ‘ওনারা যেটা করেছে সেটা যদি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সাফল্য আসে, সেক্ষেত্রে স’রকার রিজার্চ রাখবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here