দেশে করো’নাভাই’রাসের সং’ক্র’মণের ফলে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। স্থগিত রয়েছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও। কবে নাগাদ এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তাও বলতে পারছেন কেউ।

এদিকে ঘরব’ন্দি থাকা এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফাঁকে ফাঁকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির প্রস্তুতিও সেরে ফেলতে পরাম’র্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। কেননা অন্যান্য বছরের ন্যায় এবার এইচএসসি পরীক্ষার পর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছুদের যথেষ্ট সময় হাতে থাকবে না।

বিগত বছরগুলোতে সাধারণত এপ্রিল-মে মাসের মধ্যে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া হয়। আর সেপ্টেম্বর-অক্টোবর থেকে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এ বছর করো’নার কারণে জুলাই মাসের মধ্যে এইচএসসি পরীক্ষার নেয়া যাচ্ছে না।

এমতাবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুদের চলমান ছুটির সময়ে প্রস্তুতি পর্ব সেরে ফেলার অনুরোধ জানিয়েছেন ডা. দীপ মনি। তিনি বলেন, এরপরে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য খুব কম সময়ই পাবেন।

শনিবার (২০ জুন) রাতে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের নিয়মিত আয়োজন ‘ক্যাম্পাস ট’ক’ এর ফেসবুক লাইভে আসেন শিক্ষামন্ত্রী। সেখানে স্থগিত এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন নিয়ে এসব কথা জানিয়েছেন তিনি।

এসময় ঘরব’ন্দি পরীক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে ডা. দীপু মনি বলেছেন, হঠাৎ পরীক্ষা পিছিয়ে গেলে, একটা ভীষণ রকম হতাশা কাজ করে। আমি নিশ্চিত যারা এইচএসসি পরীক্ষার্থী তাদেরও একই অবস্থা। আপনাদের জায়গায় থাকলে আমিও একই রকম বোধ করতাম।

এই অবস্থায় আমি আপনাদের বলব- একটা পাবলিক পরীক্ষা যেখানে কয়েক লাখ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেবে। তাদের স’ঙ্গে যু’ক্ত থাকবে পরিবার, শিক্ষকরা মিলে আরও কয়েক লাখ। আর করো’নার এই সং’কটে এতো লক্ষ মানুষকে নিয়ে পরীক্ষার আয়োজন করে এতো স্বাস্থ্য ঝুঁ’কি আম’রা নিতে পারি না।

অধিকাংশদের গণপরিবহন ব্যবহার করে পরীক্ষাকেন্দ্রে আসতে হবে, তাহলে তাদের বি’পদ আরও বেড়ে যাবে। এর ফলে শিক্ষার্থীরাসহ পরিবারের সদস্যরাও ঝুঁ’কিতে পড়বেন। তাদের মাধ্যমে অন্যরাও সংক্রমিত হতে পারেন। সুতরাং এই রকম একটি স্বাস্থ্যঝুঁ’কিতে যাওয়ার মতো অবস্থা এখন আমাদের নেই।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সেই কারণে এই মুহূর্তে পরীক্ষাটি নেয়ার ব্যাপারে আম’রা কিছু করতে পারছি না। যখন পরিবেশ আরও স্বাভাবিক হয়ে আসবে। যখন পরীক্ষা নেয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হবে।

তখন অবশ্যই আম’রা পরীক্ষা নেব। আর আম’রা পরীক্ষা নেয়ার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিলাম। তারপরে কোভিডের কারণে এটি বন্ধ করে দিতে হয়েছে। আমাদের প্রস্তুতি আছে। সুতরাং শিক্ষার্থীরাও তাদের প্রস্তুতি বজায় রাখবে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রতি আরেকটি অনুরোধ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য স্বাভাবিক সময়ে এইচএসসি পরীক্ষা দেয়ার পর যে সময়টুকু সময় শিক্ষার্থীরা পান, এবার তা পাবেন না। কাজেই এখনই এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি বজায় রেখে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রস্তুতিও নিতে থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here