নেই কোন ডাক্তা‌রি সা‌র্টিফি‌কেট। নেই কোন ডিগ্রী। তারপ‌রেও তারা দুই ভাই চি‌কিৎসক। আর এমন অ‌ভিনব কায়দায় প্র’তারণা ক‌রে হাজা‌রো মানুষ‌কে চি‌কিৎসার না‌মে ভু’ল চি‌কিৎসা দি‌য়ে আস‌ছিল পি‌রোজপু‌রের দুই সহোদর।

এই দুই ভুয়া চি‌কিৎস‌কের চি‌কিৎসায় এবার প্রা’ণ গে‌লো তুষার শেখ (১৫) নামে এক কিশোরের। ম এ ঘ’টনায় ভুয়া চিকিৎসক সহোদর আলী হাসান লিয়ন (৩০) ও তার ছোট ভাই আলী ইমাম অন্তুকে (২২) ঘ’টনাস্থল থে‌কে গ্রে’ফতার ক‌রে‌ছে পু’লিশ।

মৃ’ত কি‌শোর তুষার শেখ পৌরসভার ঝালকাঠি এলাকার সোহাগ শেখের ছেলে।

আ’টককৃতরা পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার মৃ’ত আ. ছালাম মধু ও বর্তমান কমিশনার লায়লা পারভীনের ছেলে।

সেখান থেকে আবার ওই রাতে শহরের উত্তর নামাজপুর এলাকার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসার কথা বলে পৌরসভার সাবেক কমিশনার আ. ছালাম মধুর বাড়িতে নিয়ে যায়। ওই বাড়ির কাছারি ঘরে (বৈঠক খানা) পিরোজপুর জে’লা হাসপাতালের ফার্মাসিস্ট সচীন্দ্র নাথ, নাইট গার্ড মাজেদ হোসেন ও পৌর কমিশনার লায়লা পারভীনের (মৃ’ত আ. সালাম মধুর স্ত্রী) দুই ছেলে আলী হাসান লিয়ন ও তার ছোট ভাই আলী ইমাম অন্তু মিলে সেখানে তাকে অপারেশন করেন। এতে তার অবস্থা গু’রুতর হয়ে পড়লে রাত সোয়া ১২টার দিকে আ’হতকে আবারও একটি অটোরিকশায় করে জে’লা হাসপাতালে ভর্তির জন্য তারা নিয়ে যায়।

জে’লা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাক্তার নিজাম উদ্দিন বলেন, রাতে আবার জে’লা হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃ’ত দেখে বি’ষয়টি পু’লিশকে জানানো হয়।

পিরোজপুর সদর থানার অ‌ফিসার ই’নচার্জ(ও‌স) ইসলাম বাদল জানান, এ বি’ষয়‌টি জানার প‌রে আ‌মি তাৎক্ষ‌ণিক ঘ’টনাস্থ‌লে যাই। এবং সব কিছু তদ‌ন্তের মাধ‌্যমে প্রাথ‌মিক অবস্থায় দুই ভাই সহ তিনজন ভুয়া ডাক্তার‌কে গ্রে’ফতার করি।
এবং লা’শ ময়নাতদ‌ন্তের জন‌্য জে’লা সদর হাসপাতা‌লে ম‌র্গে প্রেরণ ক‌রি।

ভুয়া চিকিৎসায় ওই তরুণের মৃ’ত্যুর খবর পেয়ে আমিসহ পু’লিশ সদস্যরা ওই রাতেই হাসপাতালে যাই এবং রাত পৌনে ১টার দিকে ঘ’টনার স’ঙ্গে জ’ড়িত ভুয়া ডাক্তার দুই সহোদরকে আ’টক করি।

মৃ’ত কিশোরকে উ’দ্ধার করে ম’য়নাত’দন্তের জন্য জে’লা হাসপাতাল ম’র্গে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here