এমনিতেই লকডাউনে দিল্লির মানুষ ঘরব’ন্দি। কেজরিওয়ালের স’রকার ক্র’মাগত ঘোষণা করে চলেছে খুব প্রয়োজন ছাড়া যেন দিল্লির মানুষ বাড়ি থেকে না বেরোন। আর এবার ঘরব’ন্দি মানুষকেও জানলা-দরজা ব’ন্ধ করে থাকতে হচ্ছে।

প’ঙ্গপালের উ’ৎপাতে দিল্লির মানুষের জেরবার অবস্থা। পাকিস্তান থেকে আসা প’ঙ্গপালের দল রাজস্থানের বিস্তীর্ণ কৃষিজমি উজাড় করে এবার রাজধানীতে হা’না দিয়েছে। প’ঙ্গপালের উৎপাতে গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাবের কৃষকদের ব্যাপক ক্ষ’তি হয়েছে। এবার দিল্লি-এনসিআর এলাকাতেও প’ঙ্গপালের উৎ’পাতে অ’তিষ্ঠ মানুষ।

মাঠে বহু বোলারের ধোলাই করেছেন তিনি। তাঁর আ’ক্রমণা’ত্মক ব্যা’টিং-এর সামনে হাঁটু গেড়ে বসেছেন বহু তাবর বোলার। প’রিস্থিতি যেমনই হোক না কেন বীরেন্দ্র সেহবাগ সবসময় আ’ক্রমনা’ত্মক হয়েই খেলতেন।

এবার সেই বীরু প’ঙ্গপালের হা’নায় কাত হয়েছেন। ভারতীয় দলের প্রা’ক্তন ওপেনার থাকেন দিল্লি-এনসিআর এলাকায়। তাঁর এলাকাতেও লাখ লাখ প’ঙ্গপাল হা’না দিয়েছে। ইতিমধ্যে গু’রুগ্রামের আকাশে পঙ্গ”পালের দল উড়তে দেখা গিয়েছে। গু’রুগ্রামের বহু এলাকায় হাই অ্যা’লার্ট জারি করা হয়েছে।

পরিস্থিতি মো’কাবিলায় কেন্দ্রের তরফে এগারোটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। কৃষকদের বলা হয়েছে কী’টনাশক স্প্রে প্রস্তুত রাখতে। রাতে প’ঙ্গপাল উড়তে পারে না। তাই ওই সময় কী’টনাশক স্প্রে করে প’ঙ্গপালের দলকে নিকেশ করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here