মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছা’ত্রী মিলি প্রেমের ফাঁ’দে পরে রাতে পর রাত দে’হ বিলিয়ে দিল তার বয়ফ্রেন্ড হাছান নামক যুবককে। আর সেই হাছান প্র’তারণা করে ছা’ত্রীটির সব কিছু লু’টিয়ে নিল। এই সত্য ঘ’টনা অবলম্বনে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন দেশের প্রথম সারির একটি বেস’রকারি টেলিভিশন চ্যানেল।

প্রতিবেদনটিতে উঠে এসেছে ভু’ল নম্বরে মোবাইলে কথা বলে খুব অল্প সময়ে পরিচয় থেকে প্রণয় এরপর লিভ টুগেদারের ভ’য়ানক চিত্র। প্রথম সাক্ষাতের পর থেকেই তাদের মধ্যে প্রেমের স’ম্পর্ক হতে থাকে গভীর থেকে গভীর। এরপর দিন-রাতের বেশির ভাগ সময় মোবাইলে কথা বলা এবং মাঝে মাঝেই তাদের সাক্ষাত করা।

এভাবে কিছুদিন চলার পর মিথ্যা পরিচয় দেয়া নে’শাগ্রস্থ হাছান নামক যুবক নানা ছলচাতুরি করে বিয়ে না করেই একসাথে একটি বাসা নিয়ে মে’য়েটিকে থাকার প্রস্তাব দেয়। বিয়ে না হওয়ায় মেডিকেল কলেজ ছা’ত্রীটি প্রথমে এ প্রস্তাবে রাজি হয় না,

কিন্তু অ’ভিনয়ের কাছে ছা’ত্রীটি হেরে গিয়ে অবশেষে স্বা’মী-স্ত্রী’র মিথ্যা পরিচয় দিয়ে একটি বাসার ভাড়া করে একসাথে থাকা শুরু করল এবং মেডিকেল ছা’ত্রী মিলি তার দে’হ বিলিয়ে দিতে থাকল।

শেষ পর্যায়ে এসে মেডিকেল ছা’ত্রী মিলি তার বয়ফ্রেন্ড হাছানকে প্র’তারণার কথা বলতেই শুরু হয়ে যায় বাকতিন্ডা। এবং প্রথম দিকে প্রণয় এরপর দে’হ বিলিয়ে দেয়া,

টাকা পয়সা দিয়ে প্র’তারণার কাছে হার মানা এবং সর্বশেসে জীবন দিয়েই শেষ হয় এই নি’র্মম সত্য ঘ’টনা। পরে প্র’তারক হাছানকে গ্রে’ফতারও করা হয়।

এসকল ভ’য়ংকর সমস্যা থেকে উত্তরণে প্রতিবেদনটিতে সাইফুল ইস’লাম নামক একজন বিশেষজ্ঞের পরাম’র্শ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি এসকল সমস্যা থেকে সমাধানের উপায় স’ম্পর্কে নানা দিক নির্দশনা মুলক পরাম’র্শ দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here