‘ব’ন্দুকযু’দ্ধে’ নি’হত বেলালকে ‘সিরিয়াল শি’শু ধ’র্ষক’ হিসেবে অভিহিত করেছে পু’লিশ চট্টগ্রাম নগরীর আওতাধীন বায়েজীদ বোস্তামী থানায় পু’লিশের স’ঙ্গে “ব’ন্দুকযু’দ্ধে” নি’হত হয়েছেন ৯ টি ধ’র্ষণ মা’মলার আ’সামি বেলাল দফাদার।

বুধবার (২২ জুলাই) দিবাগত রাত ১টার দিকে শান্তিনগর এলাকার পাহাড়ে এই ব’ন্দুকযু’দ্ধের ঘ’টনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পু’লিশ। ঘ’টনাস্থল থেকে কাছ থেকে আ’গ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা ট্যাবলেট উ’দ্ধার করে পু’লিশ। পু’লিশ তাকে “সিরিয়াল শি’শু ধ’র্ষক” হিসেবে অভিহিত করেছে।

বায়েজিদ থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিতন স’রকার ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “নি’হত বেলালের বি’রুদ্ধে ৯টি ধ’র্ষণের মা’মলা রয়েছে। এরমধ্যে ৭টা মা’মলা বায়েজিদ থানায়, অন্য দুইটি মা’মলা আকবরশাহ থানার অধীনে।”

নি’হতের ম’রদে’হ বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ম’য়নাত’দন্তের জন্য পাঠানো হয়ে বলেও জানান তিনি।

সারাদেশঃ দেশ-বিদেশে কোরবানি নিয়ে কোনও ধরনের ষ’ড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না বলে হুঁ’শিয়ারি উচ্চারণ করেছেন হেফাজতে ইসলামের মহাস’চিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। বুধবার (২২ জুলাই) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন,

‘কোরবানি ইসলাম ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। সামর্থ্যবান নর-না’রীর ও’পর কোরবানি করা ওয়াজিব। কোরবানি বছরে কেবল একবার আদায় করতে হয়।

এর মাধ্যমে মহান আল্লাহর নৈকট্য ও ভালোবাসা অর্জন হয়৷ তাই দেশ-বিদেশে কেউ কোরবানি নিয়ে কোনও প্রকার ষ’ড়যন্ত্র করলে তা বরদাশত করা হবে না।‘

বাবুনগরী বলেন, ‘সংখ্যাগরিষ্ঠ মু’সলিম দেশ বাংলাদেশের ঢাকা মোহাম্মাদপুর জাপান গার্ডেন সিটি, চট্টগ্রামের হাটহাজারী ফতেয়াবাদ, সিলেটের এমসি কলেজ এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে কোরবানির ব্যাপারে বিভিন্ন নি’ষেধাজ্ঞা জারি করেছে এলাকা কর্তৃপক্ষ।

উপরোক্ত এলাকাগুলোর কর্তৃপক্ষের এরকম দুঃসাহসি সি’দ্ধান্তকে ঘৃণাভরে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।স্বা’স্থ্যবিধি মেনে অফিস আ’দালত, ব্যবসা বাণিজ্য ও গার্মেন্টস-কোম্পানি চলতে পারলে স্বা’স্থ্যবিধি মেনে কোরবানিও অবশ্যই করা যাবে।’

স’রকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বা’স্থ্যবিধি মেনে কোরবানি আদা’য়ের কথা বলার পরেও ওই এলাকাগুলোর ‘এরকম হঠকারী সি’দ্ধান্ত চ’রম ধৃষ্টতা’ বলে মন্তব্য করেন হেফাজত মহাস’চিব।

তিনি বলেন, ‘ক’রোনাভা’ইরাসের কারণে এমন সি’দ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানালেও স্বা’স্থ্যবিধি মেনে শরয়ী পদ্ধতি অনুযায়ী কোরবানি করলে কোনও স’মস্যা হবে না বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সুতরাং ক’রোনাভা’ইরাসের অজুহাত দিয়ে এমন সি’দ্ধান্ত গ্রহণ করা মানে ধর্মীয় বিধান পালনে অ’বৈধ হস্তক্ষেপ করা। যা কোনও অবস্থায় মু’সলমানরা বরদাশত করতে পারে না।’

অবিলম্বে এরকম নি’ষেধাজ্ঞা প্রত্যাখ্যান করার জো’র দাবি জানিয়ে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, ‘সংখ্যাগরিষ্ঠ মু’সলিম দেশে কুরবানি নিয়ে কোনও প্রকার ষ’ড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না। প্রয়োজনে তাওহিদী জনতা নি’ষেধাজ্ঞাকারীদের মো’কাবিলায় সুশৃঙ্খল আন্দোলনে নামতে বা’ধ্য হবে।’

এদিকে ভারতের প্রস’ঙ্গ টেনে জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, ‘বিশ কোটি মু’সলমানদের দেশ ভারতে আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানি বন্ধ করার জন্য হাইকোর্টে মা’মলা করেছে উ’গ্র হিন্দুত্ববা’দী দল বিজেপির এমপি অর্জুন সিং।

তাছাড়া কোরবানি উপলক্ষে ভারতীয় মু’সলমানদের বিভিন্নভাবে হ’য়রানি ও নি’র্যাতন করা হয়ে থাকে প্রতিবছরই।

গণতান্ত্রিক দেশ ভারতে মু’সলমানদের ধর্মীয় বিধান পালনে নি’ষেধাজ্ঞা এবং হ’য়রানি করা চ’রম ঘৃণিত ও নিন্দনীয় একটি কাজ।’ তিনি ভারত স’রকারের প্রতি এ ধরনের নি’ষেধাজ্ঞা আপোরে বিরত থাকার দাবি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here