মেডিকেল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁ’সের ঘ’টনায় গ্রে’ফতার ৫ জনের ৩ জনকে ৭ দিন করে রি’মান্ড দিয়েছেন আ’দালত। বাকি দু’জন স্বী’কারোক্তিমূ’লক জবানব’ন্দি দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) তাদেরকে আ’দালতে হাজির করলে এ নির্দেশ দেন বিজ্ঞ আ’দালত।

এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে পু’লিশের অ’প’রাধ ত’দন্ত বিভাগ (সিআইডি) মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র স্বাস্থ্য অধিদফতরের ছাপাখানা (প্রেস) থেকেই ফাঁ’স করা হতো বলে জানায়।

সিআইডি জানায়, স’ন্দে’হভাজন হিসেবে গত ১৯ জুলাই এস এম সানোয়ার হোসেনকে গ্রে’ফতার করা হয়। তার দেয়া ত’থ্যের ভিত্তিতে মিরপুরে অ’ভিযান চা’লিয়ে গ্রে’ফতার করা হয় আরো ৫ জনকে।

সিআইডি জানায়, প্রেসের মেশিনম্যান সালাম এবং তার খালাতো ভাই জসীম- এ দুজন গড়ে তুলেছিলেন এ চ’ক্র। দীর্ঘদিনের অনুসন্ধানে পুরো চ’ক্রটিকে চিহ্নিত করেছে সিআইডির ত’দন্তকারী দল।

‘ব’ন্দুকযু’দ্ধে’ নি’হত বেলালকে ‘সিরিয়াল শি’শু ধ’র্ষক’ হিসেবে অভিহিত করেছে পু’লিশচট্টগ্রাম নগরীর আওতাধীন বায়েজীদ বোস্তামী থানায় পু’লিশের স’ঙ্গে “ব’ন্দুকযু’দ্ধে” নি’হত হয়েছেন ৯ টি ধ’র্ষণ মা’মলার আ’সামি বেলাল দফাদার।

বুধবার (২২ জুলাই) দিবাগত রাত ১টার দিকে শান্তিনগর এলাকার পাহাড়ে এই ব’ন্দুকযু’দ্ধের ঘ’টনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পু’লিশ। ঘ’টনাস্থল থেকে কাছ থেকে আ’গ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা ট্যাবলেট উ’দ্ধার করে পু’লিশ। পু’লিশ তাকে “সিরিয়াল শি’শু ধ’র্ষক” হিসেবে অভিহিত করেছে।

বায়েজিদ থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিতন স’রকার ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “নি’হত বেলালের বি’রুদ্ধে ৯টি ধ’র্ষণের মা’মলা রয়েছে। এরমধ্যে ৭টা মা’মলা বায়েজিদ থানায়, অন্য দুইটি মা’মলা আকবরশাহ থানার অধীনে।”

নি’হতের ম’রদে’হ বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ম’য়নাত’দন্তের জন্য পাঠানো হয়ে বলেও জানান তিনি।

এরআগে ২০১৬ সালে বেলালকে দুই শি’শু ধ’র্ষণের ঘ’টনায় গ্রে’ফতার করা হয়, পরে জা’মিনে বের হয়ে তিনি বায়েজিদ থানায় অবস্থান করছিলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here