ইসলাম ডেস্ক-প্রা’ণঘা’তী ক’রোনাভা’ইরাসেের কারণে দীর্ঘদিন সৌদি আরবে বন্ধ থাকা পবিত্র ওমরাহ অবশেষে সীমিত পরিসরে চালু হচ্ছে।

তবে প্রথমেই সৌদি আরবে বসবাসকারীরা নির্দিষ্ট শর্তপূরণ সাপেক্ষে ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন। এরপর ধীরে ধীরে বিদেশিরাও সুযোগ পাবেন। তবে সেটাও হবে সীমিত পরিসরে এবং সীমিত সংখ্যায়। বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেশটির হারামাইন শরিফাইন সূত্র।

এদিকে দেশটির প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্থানীয়দের নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া মেনে নিবন্ধ’ন করতে হবে। নিবন্ধ’নের সময় ক’রোনা নেগেটিভ রিপোর্ট বা’ধ্যতামূ’লকভাবে দাখিল করতে হবে।

নিবন্ধ’ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে ওমরাহ পালনের সময়, তারিখ উল্লেখ করে ‘ওমরাহ পারমিট’ দেওয়া হবে। তবে এ সংক্রান্ত বিস্তারিত ঘোষণা ও পরিকল্পনা, ওমরাহ শুরুর তারিখ সম্প’র্কে হজ ও ওমরাহ ম’ন্ত্রণালয় খুব শিগগিরই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে।

এ ছাড়া সৌদি আরবের নাগরিকরা বিশেষ কাজের জন্য দেশের বাইরে যেতে পারবেন। সেক্ষেত্রে কূটনৈতিক, বাণিজ্যিক, আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থার কাজ, পরিবারের সদস্যরা বাইরে থাকলে, বিদেশে শিক্ষা এবং চিকিৎসাসহ কয়েকটি জরুরি গুরুত্বপূর্ণ কাজে দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ পাবেন সৌদি নাগরিকরা।

২০২১ সালের ১ জানুয়ারির পর সৌদি আরব নাগরিকদের জন্য জল, স্থল ও বিমান পথে চলাচলে ভ্রমণ নি’ষেধাজ্ঞা পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হবে। ক’রোনাভা’ইরাসেের সং’ক্র’মণ ঠে’কাতে মার্চ থেকে সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত করে সৌদি আরব।

এদিকে সৌদি আরবের অংশিক আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর ঘোষণা নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। অনেকে মনে করছেন, এখন যে কেউ সৌদি আরব যেতে কিংবা আসতে পারবেন। কিন্তু বি’ষয়টি এমন নয়। নির্দিষ্ট দেশের, নির্দিষ্ট শ্রেণির লোকেরাই আপাতত এ সুবিধা পাবেন। বর্তমানে অনুমতি নিয়ে চার্টার্ড কিংবা বিশেষ ফ্লাইট চলাচল করছে। এখনো সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়নি।

উল্লেখ্য, সৌদি আরব ক’রোনাভা’ইরাসে সং’ক্র’মণের কারণে ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ওমরাহ বন্ধ করে দেয়। তবে মক্কার মসজিদুল হারামে সীমিত মুসল্লিদের অংশগ্রহণে জুমা ও জামাত চালু রয়েছে। ক’রোনা পরিস্থিতির কারণে কঠোর বিধি-নি’ষেধের মধ্য দিয়ে শুধুমাত্র সৌদি আরবে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের অল্পসংখ্যক মানুষ স্বা’স্থ্যবিধি মেনে হজ পালন করেছেন।

হজ শেষে ধারণা করা হচ্ছিল, উম’রা কার্যক্রম শুরু করবে দেশটি। গত ৪ আগস্ট দেশটির হজ ও ওমরাহ বি’ষয়ক ম’ন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী ড. হুসাইন আল শরিফ সৌদি গেজেটকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, হজের অ’ভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে শিগগিরই ওমরাহ কার্যক্রম চালু করতে যাচ্ছে সৌদি স’রকার।

ওই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, হজ ম’ন্ত্রণালয় শিগগির ওমরাহর প্রস্তুতি পর্ব শুরু করতে যাচ্ছে। ক’রোনাভা’ইরাসে রোধে স্বা’স্থ্য সুরক্ষায় সদ্য সমাপ্ত হওয়া হজের অ’ভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ওমরাহর জন্য সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হবে।

সাধারণত প্রতি বছর হজের পর মহররমের মাঝামাঝি থেকে পবিত্র ওমরাহ কার্যক্রম চালু করে সৌদি আরব। পবিত্র রমজান মাসের শেষ পর্যন্ত ওমরাহ ভিসা প্রদান করা হয়। বাংলাদেশ থেকে বছরে লক্ষাধিক ধর্মপ্রা’ণ মানুষ পবিত্র ওমরাহ পালন করতে সৌদি আরব যান।

ক’রোনার কারণে আকস্মিকভাবে গত ফেব্রুয়ারিতে ওমরাহ কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকে ভিসা ও প্লেনের টিকিট কা’টা সত্ত্বেও সৌদি যেতে পারেননি। পরে অবশ্য সংশ্লিষ্টরা টিকিটের টাকা রিফান্ড করেন।

একাধিক হজ এজেন্সি মালিক জানিয়েছেন, ওমরাহ পালনে আ’গ্রহী অনেকেই তাদের পাসপোর্ট এখনো এজেন্সিতে জমা দিয়ে রেখেছেন। আবার কবে ওমরাহ ভিসা চালু হবে সে খোঁজখবর নেওয়া শুরু করেছেন তারা।

ওমরাহ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় বেস’রকারি দেড় হাজারের বেশি এজেন্সির চ’রম বিপাকে রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here