নারায়ণগঞ্জের দক্ষিণ তল্লার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বি’স্ফোরণের ঘ’টনার র’হস্য উদ্ঘাটন করেছে বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিসের ত’দন্ত কমিটি।

ত’দন্ত কমিটির পেশ করা প্রতিবেদনে জানানো হয় মসজিদের ভিতরে গ্যাস লিকেজ হচ্ছিল বেশ আগে থেকেই।

এরপর মসজিদের বৈদ্যুতিক সুইচ চা’প দেয়ার পর আ’গুনের স্ফুলি’ঙ্গ তৈরি হলে সেখান থেকেই আ’গুনের উৎপত্তি হয়। ভে’তরে জমে থাকা গ্যাসের মাধ্যমেই সেই আ’গুন ছড়িয়ে পড়ে গোটা মসজিদে।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স থেকে গঠন করা ত’দন্ত কমিটি স্ব’রা’ষ্ট্রম’ন্ত্রণালয়ে তাদের ত’দন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। সেই প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, মসজিদটি তৈরি করার সময় বিল্ডিং কোড না মেনেই তৈরি করা হয়েছিল।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, মসজিদ কমিটি বা এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে পাইপ লিকেজের কথা তিতাসকে জানানোর কথা বলা হচ্ছিল এর কোনো লিখিত দলিল পাওয়া যায়নি। তবে অনেকে জানিয়েছেন মৌখিকভাবে অ’ভিযোগ করা হয়েছিল।

প্রস’ঙ্গত, গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে ভ’য়াবহ বি’স্ফোরণে কেঁপে ওঠে নারায়ণগঞ্জের তল্লার বাইতুস সালাত জামে মসজিদ। বি’স্ফোরণের পর প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হয়েছিল মসজিদে থাকা এসিগুলো বিস্ফোরিত হয়েই এমন ঘ’টনা ঘটেছে।

কিন্তু পরবর্তীতে জানা যায় এসিগুলো বিস্ফোরিত হয়নি। ওই ঘ’টনায় দ’গ্ধ ৩৭ জনকে গু’রুতর অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হলে এখন পর্যন্ত মা’রা গেছেন ৩১ জন।

বাকিদের মধ্যে ১ জনই কেবল সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। অন্য পাঁচজনের অবস্থা এখনও আ’শঙ্কাজনক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here