ক’রোনার দ্বিতীয় ঢেউ মো’কাবিলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নিলেও লকডাউনে যাওয়ার কথা ভাবছে না স’রকার। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স’চিবালয়ে আন্তঃম’ন্ত্রণালয় সভা শেষে এ কথা জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ স’চিব।

সংশ্লিষ্ট ম’ন্ত্রণালয়গুলোকে নিজস্ব পরিকল্পনা প্রণয়ন করে সাত দিনের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে জমা দিতে বলা হয়েছে। বিমানবন্দরগুলোতে নজরদারির দায়িত্বে থাকবে সে’নাবা’হিনী।

গেল কয়েকদিন ধরেই স্বয়ং স’রকার প্রধানের ইঙ্গিতের পর কিছুটা নড়েচড়ে বসেছে ম’ন্ত্রণালয়গুলো। কো’ভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ এলে তা সামাল দিতে কী কী পদক্ষেপ নেয়া হবে, তা নিয়েই চলছে প্রতিরোধ পরিকল্পনার কাজ৷

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স’চিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আহ্বানে বেশ কয়েকটি ম’ন্ত্রণালয়ের স’চিবদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় আন্তঃম’ন্ত্রণালয় সভা।

সে’নাবা’হিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লে. জে. মাহফুজুর রহমান বলেন, যারা বাইরে থেকে আসবে তাদের ক’রোনা নেই তার সার্টিফিকেট,

এছাড়া যারা আ’ক্রান্ত ছিলেন কতদিন কোয়ারেন্টাইন ছিলেন তার সার্টিফিকেট নেয়া হবে। স’ন্দে’হ হলে তাকে কোয়ারেন্টাইনেও পাঠানো হবে।

সর্বাত্মকভাবে এই দু’র্যোগের কবল থেকে বাঁচতে কী কী করণীয় রয়েছে, তা নিয়ে ম’ন্ত্রণালয়গুলোকে সাতদিনের মধ্যে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের নির্দেশ দেয়া হয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের তরফ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here