আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার কুলতলির বাসিন্দা শুভঙ্কর ও তার প্রেমিকা ভালবাসার নিদর্শন দিলেন। গত সোমবার কুলতলির পূর্ব গোপালগঞ্জে শুভঙ্করের বাড়িতেই চারহাত এক করা হয়।

অনেক লড়াই করা, কষ্ট পাওয়া সেই মেয়েটাকে নিজের মেয়ের মতো করেই বাড়িতে তুলেছেন শুভঙ্করের বাবা ও মা। সূত্র: নিউজ এইটিন।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, কুলতলি ব্লকের পশ্চিম গোপালগঞ্জের বাসিন্দা শুভঙ্করের ভালোবাসার মানুষটি। কিন্তু গোটা জীবনটা তার বড়ই বড়ই যন্ত্রণার।

ওই তরুণীর মাতৃগর্ভে থাকার সময়ই তার বাবা বিয়ে করে চলে যায়। জন্মানোর সঙ্গে সঙ্গেই মৃত্যু হয় মায়ের। একমাত্র আশ্রয় ছিল মাসি, দিদা ও দাদা। ছোটবেলা কোনোরকমে

নিজের ওপর অত্যাচারের কথা খুলে জানায় প্রেমিককে। শুভঙ্কর বিষয়টি জানায় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে। তাদের পক্ষ থেকে কুলতলি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

ঘটনার তদন্তে নেমে অভিযুককে গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু এর পরিণতি হয় আরো মারাত্মক।অভিযোগ করার ‘অপরাধে’ বাড়ি ছাড়তে হয় অসহায় মেয়েটাকে।

তাকে যৌন পল্লীতে বিক্রি করে দেওয়ারও চেষ্টা করে তার অত্মীয়রা। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হোমে পাঠায়। সেখানেই নতুন জীবন শুরু হয়

নির্যাতিতা ওই সাহসী কিশোরীর। নতুন করে পড়াশোনাও শুরু করে। ২০১৯ সালে মাধ্যমিক পাস করেন ওই তরুণী। ততদিনে স্নাতক পাস করে ফেলেছেন শুভঙ্কর।

প্রথমে উপার্জনের জন্য গাড়ি চালানোর কাজ শুরু করলেও পরবর্তীকালে মাছের ব্যবসা শুরু করেন তিনি। একইসঙ্গে ছোটবেলার প্রেমিকার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন শুভঙ্কর।

প্রাপ্তবয়স্ক হলে ওই তরুণী হোম কতৃপক্ষের কাছে বিয়ে করার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। পাত্র হিসেবে শুভঙ্করের কথা জানান তিনি। যোগাযোগ করা হয় শুভঙ্কর ও তার পরিবারের সঙ্গে।

এরপর গত সোমবার কুলতলির পূর্ব গোপালগঞ্জে শুভঙ্করের বাড়িতেই তাদের বিয়ে হয়।ভালবাসার এমন নিদর্শন ইতিহাস হয়ে থাকবে বলে মনে করেন অনেকে।

মায়ের সংসার ভাঙার গুঞ্জনে শ্রাবন্তীর ছেলে ঝিনুকের র’হস্য!

বিনোদনঃ কয়েক মাস আগে কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি ও রোশান দাম্পত্য জীবনের এক বছর পূর্ণ করেন। ভালোই চলছিল এ জুটির জীবন। হঠাৎ তাদের এ সংসারে

ভাঙনের সুর বাজছে! দুর্গাপূজার আগে থেকে আলাদা থাকছেন তারা। বেশ সুখেই ছিলেন শ্রাবন্তী৷ হঠাৎ কি হলো যে স্বামী রোশান সিংয়ের থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন তিনি

এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে সবাই। এমনি সময় নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে বড় ঘোষণার ইঙ্গিত দিয়ে র’হস্য জমিয়ে দিলো শ্রাবন্তীপুত্র ঝিনুক ওরফে অভিমন্যু চট্টোপাধ্যায়।

শুক্রবার (৭ নভেম্বর) ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি করে অভিমন্যু। নিজের ও মায়ের একটি পুরনো ছবি শেয়ার করেছে। পাশাপাশি শেয়ার করেছে একটি ভিডিও।

যাতে সংগীতের ব্যবহারও করা হয়েছে। নিজের পোস্টের ক্যাপশনেই অভিমন্যু লিখেছে, ‘বড় কিছু আসছে।’এর আগে পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী।

রাজীব ও শ্রাবন্তীর এক ছেলেও রয়েছে। সেই সম্পর্কও বেশিদিন টেকেনি। তারপর মডেল কৃষ্ণবিরাজের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান শ্রাবন্তী। বিয়েও করেন। সে সম্পর্কও এক বছর ঘুরতে না

ঘুরতে ভে’ঙে যায়। কৃষ্ণবিরাজকে ডিভোর্স দেন। এরপর ২০১৯ সালের ১৯ এপ্রিল চণ্ডীগড়ের একটি গুরুদ্বারে গিয়ে রোশনের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁ’ধেছিলেন শ্রাবন্তী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here