বর্তমানে কমবেশি আমাদের সবার হাতেই রয়েছে স্মা’র্টফোন। সেই সাথে অফু’রন্ত ইন্টারনেট। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া মূলত ফেসবুকের দৌলতে মানুষের

কাছে মানুষের পৌঁছানো খুবই সহজ হয়ে গেছে।আর যদি তা হয় এমন এক মি’ষ্টি মেয়ের গান, তা হলে তার জন্য মানুষের আ’দরের

যে কমতি হবে না, তা তো বলাই বাহুল্য! সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে এর আগেও অনেকে নিজেদের প্রতিভার দ্বারা বড় জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছে।

সামা’জিক মাধ্যমে বরাবরই কিছু না কিছু ভাইরাল হতে দেখা যায়। এবার সেরকমই এক ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা গেল এক খুদে কন্যার গ’লায় গাওয়া গান।

দু’গ্গাকে প্র’ণাম আর সব্বাইকে থ্যা’ঙ্কিউ জানিয়ে মোহর গান শেষ করেছে।ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, হলুদ রঙের একটি লে’হেঙ্গা, গোলাপি ও’ড়না আর হা’ত ভর্তি

হলুদ গোলাপি কাঁচের চুড়ি পরে রীতিমত অভি’জ্ঞ শিল্পীদের মতোই গান গেয়েছে মোহর।এবং গোটা গানটাই সে গেয়েছে অস’ম্ভব দ’ক্ষতায়,

মিষ্টি সুরের জা’দুতে মা’ত করেছে সবার হৃ’দয়! বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া খুব সহজ একটা প্ল্যা’টফর্ম এনে দিয়েছে সব শিল্পীদের সামনে। রিয়া’লিটি শো র ঝ’ঞ্ঝাট না

সামলেই যেখানে আ’ত্মপ্রকাশ করতে পারছে খুদে প্রতিভারা!ঠিক তেমনই, মোহরের মতো খুদে শিল্পীর দেখা পাওয়ার সৌ’ভাগ্যও নেটিজেনদের এই সোশ্যাল মিডিয়ারই সূত্রে,

১ মিনিট ৩১ সেকেন্ডের গোটা ভিডিওতে শুধু সুর, গানের আদত ভা’বটিকেও ফু’টিয়ে তুলেছে সে।নেটিজেনদের সব্বাই পুঁ’চকে মোহরকে স্নে’হাশিস আর

ভালো’বাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন ভিডিওর কমে’ন্ট সেকশনে, মোহরের সু’রেলা গ’লাই শুধু নয়, আধো আধো গ’লার ক’চি বুলিতেও সবাই যে রীতিমত স্নে’হের

প্লা’বনে ভেসে’ছেন, তা কার্যত স্পষ্টই!৩ বছরের খুদে মোহরের সুম’ধুর ক’ন্ঠে গাওয়া গানটির ভিডিও অতীন্দ্র চক্রবর্তী তার জন’প্রিয় পেজে শে’য়ার করেন,

যা দেখতেই দেখে ভাইরাল হয়ে যায়। সেই অতীন্দ্র চক্রবর্তী যিনি জন’প্রিয় রানু মন্ডলকে দেশবাসীর সামনে তুলে ধরেছিলেন।

অতীন্দ্র বাবু তাঁর পেজের মাধ্যমে সত্যিকারের প্রতিভা খুঁজে বার করেন। যা সকলের কাছে ট্যালেন্ট হ্যাংক নামে পরিচিত। শুধু বড়দের জন্যই নয়,

খুদে প্রতিভাকে তুলে ধরার জন্য ট্যালেন্ট হ্যাংক জুনিয়র নিয়ে আসেন অতীন্দ্র বাবু।এই প্রো’গ্রামে অনেকেই অংশগ্রহণ করেন। বাড়ি থেকেই নিজের

গানের প্রতিভার ভি’ডিও করে পাঠানো হয়। যার মধ্যে থেকে সিলে”কশন হয়। মোহর দেবনাথের ক’ণ্ঠে গাওয়া গানটি নেটদুনিয়ায় রীতিমতো সাড়া ফেলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here