ঘুরতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে খাগড়াছড়ি জেলার মহলছড়ি থানার মাইচছড়ি কালাপাহাড় এলাকার এক কিশোরী। ৫ দিন যাবত

বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে দুই বন্ধু। বুধবার (২৫ নভেম্বর) রাতে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে দুই ধর্ষককে হাতেনাতে আটক করে মোংলা থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চট্রগ্রাম ইপিজেডে কাজ করার সুবাদে মেহেদী হাসানের সাথে পরিচয় হয় কিশোরীর। মেহেদী মোংলায় বেড়ানোর কথা বলে চট্টগ্রাম থেকে প্রথমে ২১ নভেম্বর

ঝিনাইদহে বন্ধু সুমন শরিফের বাড়ীতে স্ত্রী পরিচয় রাত্রী যাপন করে। সেখান থেকে ২৪ নভেম্বর বিকালে মোংলায় এসে মেহেদীর বাড়িতে আসে তারা।

তাদের কার্যকলাপে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে গভির রাতে সুমন ও মেহেদী হাসানকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশ।

রাতেই মেহেদীর বাড়ি থেকে ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়।ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী বাদী হয়ে এদিন রাতেই মোংলার

পশ্চিম শেহলাবুনিয়া এলাকার আজিজ খন্দকারের ছেলে ধর্ষক মেহদী হাসান (২৫) ও খোকন শরিফের ছেলে সুমন শরিফের (৩০) বিরুদ্ধে মোংলা থানায় মামলা দায়ের করে।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী জানায়, চট্টগ্রাম ইপিজেডে চাকরির সুবাধে তাদের পরিচয় হয়। বেড়ানোর কথা বলে

প্রথমে ঝিনাইদহ ও পরে মোংলায় নিয়ে আসে এবং কিশোরীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে দুই বন্ধু ধর্ষণ করে। তাদের চলাফেরা ও আচরণ সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী।

স্থানীদের মাধ্যমে দুই বন্ধুকে আটক করি এবং জোরপূর্বক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে তা শিকার করে।

২৫ নভেম্ববর রাতে থানায় মামলা দায়ের শেষে আটক দুই ধর্ষককে বৃহস্পতিবার সকালে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, ক্লাস খোলার মতো অবস্থা হলেই খুলবো। একইসঙ্গে অনলাইনে ক্লাসও চলবে। তবে স্বাস্থ্য ঝুঁকির বিষয়টি মাথায় রেখেই

এ চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী জানান, পহেলা জানুয়ারি বই বিতরণ করা হবে। আর ১৫ জানুয়ারির মধ্যে ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে বলে আমরা আশা করছি।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। গত ১ এপ্রিল এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল। করোনার কারণে তা স্থগিত করা হয়।

আগামী বছরের এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনায় নিয়ে সীমিত পরিসরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হতে পারে বলে আগেই আভাস দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী।

এক আলোচনায় দীপু মনি বলেন, সংকটের মধ্যেও আমরা পড়াশোনাকে চালিয়ে নিতে পেরেছি, চালিয়ে যাচ্ছি,

অবশ্যই এটি আমাদের কোনো আদর্শ পরিস্থিতি নয়। আমাদের অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে, তার মধ্যে আমরা চেষ্টা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here