মানুষের কাছে সবচেয়ে বড় স’ম্পর্ক হল স’ন্তান ও পিতামাতার স’ম্পর্ক। সেই স’ম্পর্কে কোন রকমের দাগ থাকে না এবং পৃথিবীর অন্যান্য

যেকোন স’ম্পর্কের থেকে সেই স’ম্পর্ককে বেশী পবিত্র বলে মানা হয়। গোটা বিশ্বজুড়ে এই নিষ্পাপ এবং হৃদয়ের স’ম্পর্কের অনেক উদাহ’রণ

পাওয়া যায়। গুগলে খুঁজলেও দেখা যায় বাবা মা এবং ছে’লের মধ্যে অনেক ম’র্মস্প’র্শী স’ম্পর্কের গল্প।কথায় আছে ছে’লের কাছে পিতা মাতা স্বর্গের সমান

এবং এই ব্যাপার অমান্য করলে স’ন্তানকে হতে হয় পাপের ভাগীদার। নরকে তার জন্য আলাদা শা’স্তির ব্যবস্থা থাকে। এইরকম অনেক কথা

মানুষের মনের ভিতর বাস করে এক কালো সত্ত্বা। সে শুধু অন্ধকার চেনে। ভালো কি বস্তু সে জানে না একেবারেই।পাপের পথে যাওয়ার জন্য সে মাঝে

মধ্যে লোকদের উ’স্কানি দেয়। আসল কথায় আসা যাক। আজকে যে গল্পটা আম’রা বলতে চলেছি সেটাও অনেকটা এইরকমই। যদিও এটা সত্যি ঘ’টনা তবুও শুনে

অনেকে গল্প বলেই মনে করতেই পারেন।লোকজনদের কথা অনুযায়ী বিয়ের পর বউমা’র দিকে কুদৃষ্টি পড়ে শ্বশুরের। তারপরই তারা ঠিক করে একসাথে পা’লিয়ে যাওয়ার কথা।

তাদের এই পা’লিয়ে যাওয়ার কথা ছড়িয়ে যায় বিভিন্ন জায়গায়। ইউপি চেয়ারম্যান তাবারিয়া চৌধুরী লোক পাঠিয়ে তাদের আ’ট’ক করেন।

ধাইনগর ইউপি কার্যালয়ে একটি বৈঠক বসে এবং তাতে স্থির হয় যে বাবর আলি তার স্ত্রী’কে তালাক দেবেন এবং পুত্র ইউসুফ আলি নিজের স্ত্রী’কে।

তালাকের পর শ্বশুর এবং পুত্রবধুর বিয়ে দেওয়া হবে।আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷

T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

চরমোনাই পীর ও মামুনুল হকের গ্রেপ্তার দাবি সিলেট জেলা যুবলীগের

আবুল হোসেন, সিলেট প্রতিনিধি: বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতা ও হুমকি প্রদান করায় ইসলামী আন্দোলনের আমির সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম (চরমোনাই পীর)

ও হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের গ্রেপ্তার দাবি করেছে সিলেট জেলা যুবলীগ।ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধীতার প্রতিবাদে সোমবার (৩০ নভেম্বর)

নগরীতে আয়োজিত এক বিক্ষোভ কর্মসূচী থেকে এমন দাবি জানিয়েছেন যুবলীগের নেতারা।রাজধানীর ধোলাইপাড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করছে সরকার।

এর বিরোধিতা করছে ধর্মভিত্তিক বেশ কয়েকটি দল। যাদের মধ্যে চরমোনাই পীর ও মামুনুল হক রয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হলে তা ভেঙ্গে বুড়িগঙ্গা নদীতে ফেলে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছেন তারা।

এর প্রতিবাদে সোমবার কেন্দ্রিয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল করে সিলেট জেলা যুবলীগ। বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে

জেলা যুবলীগ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, স্বাধীন বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক শক্তি আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠার পায়তারা করছে। তারা জাতির পিতার ভাষ্কর্য উপড়ে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here