শুটিং শেষে ডাবিং করতে গিয়ে অঝোরে কাঁদলেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস।মঙ্গলবার চ্যানেল আইয়ের স্টুডিওতে শাহরিয়ার

নাজিম জয় পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ‘প্রিয় কমলা’ ছবির ডাবিংয়ে এসে এভাবেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন এই শিল্পী।

জানা গেছে, সিনেমাটিতে বিরাঙ্গনা এক নারীর চরিত্রে অভিনয় করছেন অপু বিশ্বাস। টানা ১৮ দিন শুটিং শেষ করে এখন ডাবিং পর্ব চলছে । আর ওই ডাবিং করতে গিয়ে কাঁদলেন অপু।

এমন আবেগপ্রবণ হয়ে যাওয়ার বিষয়ে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘বীরাঙ্গনাদের নিয়ে ছবিটির গল্প। এ ধরনের চরিত্র আমার এটাই প্রথম। চরিত্রটি বেশ ইমোশনাল।

অপু বিশ্বাস বলেন, ‘ক্যারিয়ারে চল্লিশটি ছবি করার পর ডাবিং দেয়ার সুযোগ পাই আমি। ছবিটির নাম বলোনা কবুল।

ওই ছবির পর টানা ডাবিং করেছি। আজকের মতো অভিজ্ঞতা কমই হয়েছে। আশা করি দর্শকদেরও ছবিটি ভালো লাগবে।’

ছবিটি প্রসঙ্গে অপু বলেন, ‘এই ছবিতে অভিনয় করতে পেরে আমি গর্বিত। একে আমারা ক্যারিয়ারে অন্যতম অর্জন। প্রত্যেক বীরাঙ্গনাই একেক জন যোদ্ধা। সেই বীরাঙ্গনার চরিত্রে নিজে কাজ করাটা সত্যি সৌভাগ্যের।’

ছবিতে অপুর বিপরীতে অভিনয় করেছেন বাপ্পি চৌধুরী। এতে কমলা চরিত্রে অপুকে আর বাপ্পিকে প্রিয় চরিত্রে দেখা যাবে।

এ প্রসঙ্গে বাপ্পী বলেন, ‘ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় এটি আমার প্রথম কাজ। দিনরাত শুটিং করেছি ছবিটির জন্য।’

ছবিটি আগামী ১৬ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে বলে জানান পরিচালক শাহরিয়ার নাজিম। এটি তার পরিচালিত তৃতীয় ছবি ।

পরিচালক জয় ছবিটি প্রসঙ্গে বলেন, ‘যুদ্ধের সময় একেবারের অজপাড়াগাঁয়ের নিটল প্রেমের গল্প ‘প্রিয় কমলা’।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ যখন সেই গ্রামে পড়ে তখন সেই প্রেম কীভাবে যুদ্ধে পরিণত হয় সেটিই তুলে ধরা হয়েছে এ ছবিতে।

পাশাপাশি সেই ঘটনাকে ২০২০ সালের সঙ্গে লিঙ্ক করিয়ে দেখিয়েছি।’ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন সোহেল খান, সেহেঙ্গাল বিপ্লব, আজান, মালা প্রমুখ।

ময়মনসিংহে আ’ল্লাহু আ’কবর ধ্ব’নিতে আ’জা’নরত মুয়া’জ্জি’নের মৃ’ত্যু’

ময়’মন’সিংহের গৌরী’পুরে ‘আল্লা’হু’ আকবর, আল্লাহু আকবর’ ধ্বনিতে না’মাজে’র জন্য আজা’ন দে’য়া’র

সময় মা’রা গে’ছেন আ’ব্দুল কদ্দুছ নামে এক মু’য়াজ্জি’ন। তিনি খান্দা’র গ্রা’মের মৃ”ত’ স’দর আ’লীর ছে’লে।

বৃহ’স্পতি’বার (৩ ডিসেম্বর) যোহ’রের সম’য় উপ’জে’লার অ’চিন্ত’পুর ইউ’নিয়’নের খা’ন্দা’র আ’গপা’ড়া জামে ম’সজিদে আ’জা’নরত’ অব’স্থায় ওই মুয়া’জ্জি’নের মৃ”ত্যু’ হয়।

মুয়াজ্জিন
প্র’ত্য’ক্ষ’দর্শী খান্দা’র গ্রামের সরু’জ ‘আলী’র ছে’লে স’বুজ মিয়া জা’নান, মা’ই’কে দুই’বার আল্লা’হু আক’বর ধ্ব’নি শো’না’র পরে আর

কো’ন আওয়া’জ না আসায় স্থা’নী’য়রা দৌ’ড়ে ম’স’জিদে যায়। এসময় সবু’জ মি’য়া দৌড়ে গিয়ে দেখতে পান ম’সজি’দের ভিতরে মে’ঝেতে’ মো’য়াজ্জি’ন পড়ে র’য়েছেন। মু’সু’ল্লীরা দ্রু’ত ভি’তরে ‘গিয়ে দেখেন তিনি আর বেঁচে নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here