বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কথা শুনলে জনগণ টিভির চ্যানেল বদলে দেয়।

নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের প্রতিদিন র‌্যাব-পুলিশ পরিবেষ্টিত হয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। আর এই সংবাদ সম্মেলনের তারা শুধুমাত্র বিএনপির বিরুদ্ধে আজগুবি,

কল্পিত সব মিথ্যাচার ও কুৎসা উদগীরণ করেন। সংবাদ সম্মলেনে মিথ্যা বলতে বলতে সত্য ভুলে গেছেন তিনি। জনগণ তার কথা শুনলে টিভির চ্যানেল বদলে দেয়।।

এবং জনগণ অবশ্যই ঘুরে দাঁড়াবার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে এই সরকারের পতন ঘটানোর জন্য।এসময় খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন,

‘এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ বিনা দোষে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে বছরের পর বছর ধরে।

তিনি এখন বাসায় থাকলেও প্রকৃতপক্ষে তিনি মুক্ত নন। অবলিম্বে যদি দেশনেত্রীর মুক্তি না হয় তাহলে গণতন্ত্রের মুক্তি ঘটবে না এবং।দেশবাসীর মুক্তি মিলবে না।
সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রাস্তায় নামলে ভাস্কর্যবিরোধীদের অস্তিত্ব থাকবে না!

চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ হুঁ’শিয়ারি দিয়ে বলেছেন ‘যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে বা’ধা ও ভা’ঙচুরের মতো ঘটনা ঘটানোর দুঃসাহস’

দেখাচ্ছেন স’রকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রাস্তায় নামলে তাদের অস্তিত্ব থাকবে না বলে । তিনি বলেছেন, ‘বাংলাদেশের অস্তিত্বকে যারা বা’ধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছেন,

তাদের দুঃসাহস না দেখানোর অনুরোধ জানাচ্ছি। আমরা সারা বাংলাদেশের ১০ লক্ষের অধিক স’রকারি কর্মচারী একসাথে আছি। এই বার্তাটুকু দেয়ার জন্য এখানে দাঁড়িয়েছি।

এই দুঃসাহস যারা করবেন তাদের কালো হাত ভে’ঙে দেয়া হবে। আপনারা যারা সেই দুঃসাহস করছেন তাদের বলছি, আজ আপনারা আমাদের প্র’তিবাদ মঞ্চে এনেছেন।

আমাদের রাস্তায় নামাবেন না। রাস্তায় নামলে আপনাদের অস্তিত্ব থাকবে না।’বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভা’ঙচুরের প্র’তিবাদে শনিবার (১২ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম জে’লা শিল্পকলা একাডেমিতে

আয়োজিত বিভাগীয় ও জে’লা পর্যায়ের স’রকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সমাবেশে তিনি এ হুঁ’শিয়ারি উচ্চারণ করেন। বিভাগীয় কমিশনার বলেন,

‘যদি আপনারা আর কখনো এই ধরনের দুঃসাহস দেখান আর কোনো প্রকার সুযোগ যদি আপনারা নেন; তাহলে আপনাদের অস্তিত্বকে বিলীন করে দেব।

আমরা স’রকারি কর্মচারীরা জানি, কীভাবে সে কাজটি করতে হয় এবং সেখানে আপনাদের ঘরে-বাইরে সবদিক দিয়ে আমরা বা’ধাগ্রস্ত করব।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here