আমা’দের জীবনে অনেক বাধা বিপত্তি সত্ত্বেও আম’রা সেদিকে কাটিয়ে জীবনের পথে এগিয়ে চলি। যারা সেই বাধা বিপত্তি ভালোভাবে কাটিয়ে উঠতে পারেন তাদের জীবন অত্যন্ত সফল।

কিন্তু এমন কিছু সময় থাকে যখন মানুষের কিছু সুপ্ত ইচ্ছে দীর্ঘদিন চাপা পড়ে থাকলেও একদিন ডানা মেলে বেরিয়ে আসে। হাজার হাজার প্রতিকূলতা পেরিয়ে ও সেই প্রতিভা মানুষের সামনে চলে আসে।

বর্তমান যুগের সোশ্যাল মিডিয়াতে ইন্টারনেট মানুষকে নিজের সুপ্ত প্রতিভা খুঁজে পাওয়া একটি মাধ্যম দেখিয়েছে। গত এক বছর ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন নামিদামি শিল্পীকে আম’রা চিনতে পেরেছি।

ঠিক তেমনই একজন শিল্পী হুগলি জে’লার পান্ডুয়া গ্রামের চাঁদ মনি হেমব্রম। আদিবাসী সম্প্রদায়ের মেয়ে হলেও তার গলায় সুর অত্যন্ত তুখোড়।

এখন শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গ নয়, গোটা ভারতবর্ষের লোক চাঁদ মনি কে আস্তে আস্তে চিনতে শুরু করেছে। তার গলাতে মা সরস্বতী অবস্থান করেন। এরম বলে তাকে অনেকে আশীর্বাদ করেছেন

অত্যন্ত দারিদ্রতার মধ্য দিয়ে শ্রমিকের কাজ করেছেন তিনি বেশ কয়েক বছর। সারাদিন অক্লান্ত পরিশ্রমের পর দু’বেলা দু’মুঠো

অন্ন পরিবারের মুখে তুলে দিতেও তাকে অনেক বেগ পেতে হয়েছে। তার পক্ষে পড়াশুনা চালিয়ে যাওয়া অত্যন্ত কষ্টকর ছিল।

কিন্তু সমস্ত প্রতিকূলতাকে হারিয়ে দিয়ে চাঁদমনি নিজের লক্ষ্যে পৌঁছতে সক্ষম হয়েছেন। এবারে তার প্রথম গান বলিউডে মুক্তি পেতে চলেছে।

সবেমাত্র এই গানের ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে এবং ইতিমধ্যেই এই ট্রেলার বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ইন্ডিয়ান মিক্সড ভিডিও ইউটিউব চ্যানেল থেকে তার এই গানের ট্রেলার প্রকাশ করা হয়েছে।

এখানে গানের শুটিং এর কিছু অংশ তুলে ধ’রা হয়েছে। এই গান কবে রিলিজ হবে তা নিয়ে বর্তমানে চাঁদমনির ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনার সৃষ্টি হয়েছে।

আপনি যদি চাঁদমনির এই গানের ট্রেলার না দেখে থাকেন তাহলে রইল ট্রেলারটি শুধু আপনার জন্য।এখন শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গ নয়, গোটা ভারতবর্ষের লোক চাঁদ মনি কে আস্তে আস্তে চিনতে শুরু করেছে। তার গলাতে মা সরস্বতী অবস্থান করেন। এরম বলে তাকে অনেকে আশীর্বাদ করেছেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here