আরবি মাস ২৯ বা ৩০ দিনে হয়ে থাকে। রমজানও এর বাইরে নয়। তবে ২০৩০ সালের রমজান মাস ৩৬ হয়ে যাবে!রমজান মাস ঠিকই থাকবে।

তবে বছরের শুরু ও শেষে দুই বার দেখা মিলবে রমজান মাসের। তাতেই মু’সলমানরা একই বছর ৩৬ দিন রোজা পালন করবে।

এমনটি জানিয়েছেন সৌদি আরবের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগরে জলবায়ুর অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল-মু’সনাদ।

সৌদি আরবের আল-কাসিম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগের জলবায়ুর অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল-মু’সনাদ টুইটারে লিখেছেন, ২০৩০ সালের ৫ জানুয়ারি মোতাবেক ১৪৫১

আর এভাবে ২০৩০ সালে পবিত্র রমজান মাসের শুরু হবে দুই বার।কানাডা-অস্ট্রেলিয়ার পর লন্ডনের ৯ ম’সজিদে আজানের অনুমতি

কানাডা ও অস্ট্রেলিয়ার নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় প্রথমবারের মতো আজানের অনুমতি মেলার পর পূর্ব লন্ডনের ৯টি ম’সজিদেও একই অনুমতি দিয়েছে দেশটির স্থানীয় প্রশাসন।

লন্ডনের ওয়ালহাম ফরেস্ট প্রশাসনকে উদ্ধৃত করে মিরর অনলাইন জানিয়েছে, সোমবার ইফতারির আগে ম’সজিদের ছাদ থেকে বিশেষ ব্যবস্থায় আজান দেয়া হয়।

সংবাদে বলা হয়, পবিত্র রমজান মাসে প্রতিদিন মাগরিবের আজানের পাশাপাশি শুক্রবার জুম্মা’র নামাজের আজানও মাইকে দেয়া যাবে।

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ার লেবানীয় মু’সলিম কমিউনিটির প্রচেষ্টায় এই বিরল কাজ সাধ্য হয়েছে। বৈশ্বিক মহামা’রিতে আজান প্রচার করার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে।

প্রথমবার যখন আজান দেয়া হয়, পুরো মু’সলিম কমিউনিটির মধ্যে সৃষ্টি হয় এক আবেগঘন পরিবেশ।লন্ডনে যারা উচ্চস্বরে আজানের অনুমতি নিতে দৌড়ঝাঁপ করেছেন

তাদের একজন আরফান আব্রাহাম। তিনি বলেন, পূর্ব লন্ডনের পৌরসভা ঘরানার এলাকায় কখনো এটি হয়নি।

আম’রা প্রথম এভাবে জো’রে আজান দিলাম। করো’নার সময় ম’সজিদে যাওয়া যাচ্ছে না। তাই এভাবে আজান হওয়ায় ম’সজিদের সঙ্গে আমাদের একটা সংযোগ স্থাপন হচ্ছে।

গত সোমবার আজানের সময় আমা’র মা-বাবা বাগানে বসে ছিলেন। সেখান থেকেই তারা আজান শুনতে পান। বিষয়টি আমাদের কাছে অন্যরকম অনুভূতি লাগছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here