বাংলাদেশে এখন একটি ঘটনাই হয়ে দাড়িয়েছে টক অব দ্য টাউন আর তা হলো দিহান আনুশকার ঘটনা। সারা দেশে এ নিয়ে এখন শুরু হয়েছে নানা ধরনের আলোচনা সমালোচনা।

বিশেষ করে এখনও রহস্যে আবৃত মাস্টারমাইন্ড স্কুলছাত্রীর ’/মৃ’/ত্যু’/র’/ ঘটনা। ম’/য়’/না’/ত’/দ’/ন্তে’/র রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে, দিহানের বাসার প্রহরী দুলালকে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণে দেখা যায়, বাসাটিতে প্রায় দেড় ঘণ্টা ছিল মেয়েটি।

এ সময় র’/হ’/স্য’/জ’/ন’/ক গতিবিধি ছিল তিন ব্যক্তির। পুলিশ প্রধানের ধারণা, স’/র্ব’/গ্রা’/সী’/ মা’/দ’/কে’/র’/ পরিণতিতেই এমন ঘটনা ঘটতে পারে।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষনে এমন তথ্য মিললেও, এখনও ’/মৃ’/ত্যু’/র’/ সঠিক কারণ খুঁজে বের করা সম্ভব হয়নি।

তাই জিজ্ঞাবাসাদের জন্য ওই দিন দায়িত্বে থাকা প্রহরী পলাতক দুলালকে আটক করেছে পুলিশ। গণমাধ্যমে খোলা চিঠি লিখলেও অনেক চেষ্টা করেও ক্যামেরার সামনে আসতে রাজি হননি দিহানের মা।

নোবিজ্ঞানীরা বলছেন, বিকৃত যৌ’/না’/চা’/র’/ ও হ’/ত্যা’/র’/ এমন ঘটনা পুরো জাতির জন্য একটি সতর্ক সংকেত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান খন্দকার ফারজানা রহমান জোর দিচ্ছেন পারিবারিক ও স্বশিক্ষার উপর।

একইসাথে আইনের কঠোর প্রয়োগও চান তিনি।তবে, তরুণ প্রজন্মের ওপর আস্থা হারাতে চান না, অপরাধ বিজ্ঞানের এই শিক্ষক।

তার আশা, বিকৃত রুচির বিলুপ্তি ঘটিয়ে সহিংসতাহীন স্বশিক্ষিত প্রজন্মে নিরাপদে বেড়ে উঠবে প্রতিটি প্রাণ।এ দিকে এই ঘটনাটি নিয়ে এখনো চলছে বেশ নানা ধরনের রহস্য।

প্রতিনিয়তই রং বদলাচ্ছে এই ঘটনাটি। সেই সাথে জন্ম দিচ্ছেন নতুন নতুন সব আলোচনা। তবে দিহানকে রাখা হয়েছে পুলিশি হেফাজতে। এবং দোষী প্রমান হলেই খুব শিঘ্রই শুরু হবে তার বিচার।

৪ টি উপায়ে নারীকে উ’ত্তেজিত করা যায়

বি’ষয়টি অনেকের কাছেই অপ্রয়োজনীয় মনে হতে পারে। মনে হতে পারে যে এই ধরনের প্রশ্নের আসলে কোনো আবশ্যকতা নেই।

সত্যি কথা বলতে আমরা অনেকেই জানি না যে দাম্পত্য জীবনে ভাঙ্গন তৈরি করতে অনেকটাই দায়ী এই শা’রীরিক মি’লনে (physical relation) অতৃ’প্ততা।

স্বা’মী স্ত্রী ইভ’য়েই যদি শা’রীরিক মি’লনে (physical relation) অতৃ’প্ত থাকেন তাহলে সংসারে সু’খ বি’ষয়টি ধীরে ধীরে নিষ্প্রভ হয়ে পড়ে।

শা’রীরিক মি’লনে(physical relation) পুরু’ষদের (male)যেমন তৃ’প্তির কিছুটা বি’ষয় রয়েছে তেমনি না’রীদের তৃ’প্তির বি’ষয়টিও অ’ঙ্গাঅ’ঙ্গিভাবে জ’ড়িত।

এমন অনেক শা’রীরিক মি’লনে (physical relation) দেখা যায় না’রীদের (FEMALE) উ’ত্তেজনার মাত্রা অনেক কম বা শিথিল অর্থাৎ অনেক দেরিতে তারা উ’ত্তেজিত হয়ে থাকেন।

এর কারণ অন্বেষণ করে দেখা যায় যে পুরু’ষদের(male) কিছু অপারগতা এর জন্য দায়ী। যদিও সাধারণভাবে দেখা যায়

যে যৌ*aন মি’লনে না’রীদের (FEMALE) উ’ত্তেজনাটা পুরু’ষের (male)মত ততটা তাড়াতাড়ি আসে না।তাদেরকে নানা কৌশলের মাধ্যমে উ’ত্তেজিত করে নিতে হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here