বাড়ি বিক্রি করছেন কারিশমা কাপুর’বাড়ি বিক্রি করে দি’চ্ছেন বলিউড অ’ভিনেত্রী কারিশমা কাপুর। স’ম্প্রতি একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এমন খবর প্রকাশ্যে আ’সতেই শুরু হয় শো’রগোল।

জানা যাচ্ছে, মু’ম্বাইয়ের খার এলাকায় একটি বি’লাসবহুল ফ্ল্যাট রয়েছে কারিশমা কাপুরের। রোজ কুইন অ্যা’পার্টমেন্টের দশ ত’লাতেই রয়েছে করিশ্মার ওই বি’লাসবহুল বাসস্থান।

যা বিক্রি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কাপুর-কন্যা।খারের ওই বি’লাসবহুল ফ্ল্যাটের বেশ মোটা দর হাঁ’কিয়েছেন কারিশমা কা’পুর।

খারের ওই বি’লাসবহুল ফ্ল্যাট কারিশমা ১০.১১ কোটিতে বিক্রি ক’রবেন বলে জা’নিয়েছেন।ই’তিমধ্যেই বাড়ি বিক্রির বিজ্ঞাপনও দিয়েছেন অভিনেত্রী।

এদিকে ল’কডাউন ওঠার পর আলিয়া ভাট থেকে শুরু করে হৃতিক রোশন কিংবা জাহ্নবী কাপুর, ব’লিউডের

একের পর এক অ’ভিনেতা সম্পত্তি কেনাবেচা শুরু করেছেন। এবার সেই তা’লিকায় যুক্ত হল কারিশমা কা’পুরের নাম।

সম্প্রতি জি ফাইভের মে’ন্টালহুড নামে একটি ওয়েব সি’রিজে দেখা যায় কারিশমা কাপুরকে। যেখানে দিনো মোরিয়াদের সঙ্গে স্ক্রিন শে’য়ার করেন তিনি।

তবে বড় পর্দায় করিশ্মা আর কা’মব্যাক করবেন কি না, তা নিয়ে স্পষ্ট করে কখনও মুখ খো’লেননি অভিনেত্রী।

মাত্র ১ কোয়া রসুনেই যেভাবে ধরে রাখবে আপনার যৌ’বন।

এক কোয়া রসুন হা’রানো যৌ-ব-নকে কীভাবে ফিরিয়ে দেবে তা জানিয়ে দিয়েছে ভারতীয় এক গণমাধ্যম। আসুন জেনে নিই সে সম্প’র্কে…শুধু খাবার নয়,

প্রাচীনকাল থেকেই রসুন ও’ষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।বিশ্বের প্রায় সবখানেই বিভিন্ন অসু’খ থেকে নিরাময়ে রসুনকে ব্যবহার করা হয়।কিন্তু জানেন কি,

ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখার পাশাপাশি বয়স ধরে রাখার জন্যও রসুনের কোনো বিকল্প নেই।অনেকের ত্বকেই লাল-লাল দাগ দেখা যায়।

দানা দানা আকারে বেরোয় ব়্যাশ। হাত, কনুই এমনকি মুখেও মাঝে মাঝে এই দাগ দেখা যায় অনেকের। এই স’মস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার।

এক কোয়া রসুন এবং অর্ধেক টমেটো দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। ওই মিশ্রনটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন গোটা মুখ।

ট্যান উঠে গিয়ে দেখবেন চকচক করছে আপনার ত্বক।স’ন্তান জ’ন্মের পর অনেক না’রীর পেটে দাগ হয়ে যায়।

শাড়ি পড়লে সেই দাগ মোটেও দেখতে ভালো লাগে না। এই স’মস্যার জেরে শাড়ি পরার সময় অনেক ভাবনাচিন্তা করতে হয়।

জানেন কী, এই স’মস্যা থেকেও মুক্তি দিতে পারে এক কোয়া রসুন। অলিভ অয়েলের স’ঙ্গে রসুনের রস মিশিয়ে কয়েকদিন ব্যবহার করলেই মিলবে ফল।

ব্রণের স’মস্যায় ভোগেন অধিকাংশ না’রী। এই স’মস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য নানা রকম পদ্ধতি অবলম্বন করেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here