পিরোজপুরের নাজিরপুরে এনজি’ওর কিস্তি দিতে না পারায় গৌতম চন্দ্র বেপারী (৩৫) নামের এক যুবককে মা’রপিট করে গু’রুতর আ’হত করা হয়েছে।

আ’হত গৌতম চন্দ্র বেপারী উপজে’লার শ্রীরাকাঠী ইউনিয়নের ভীমকাঠী গ্রামের নিত্যানন্দ বেপারীর পুত্র। গু’রুতর আ’হত ওই যুবক

উপজে’লা স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘ’টনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (৩০জুন) উপজে’লার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের কাইলানী কাঠের পুল নামক স্থানে।

আ’হত ওই যুবক জানান, তিনি স্থাণীয় শ্রীরামকাঠী বন্দরের ‘স্বর্নালী এনজিও’ নামের স্থাণীয় একটি এনজিও থেকে ৪০হাজার টাকা লোন নেন। তিনি কিস্তি নিয়মিত ভাবে পরিশোধ করে আসছেন।

ঘাড়ে আ’ঘাতে র’ক্তাক্ত জ’খম হয়েছে। এ ছাড়া শ’রীরের বিভিন্নস্থানে আ’ঘাতের কারনে ফুলা জ’খমের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানা পু’লিশের অফিসার ইন চার্জ মো. মুনিরুল ইসলাম মুনির জানান, এ ব্যাপারে এখনো কোন লিখত অ’ভিযোগ পাই নি। অ’ভিযোগ পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যেসব কারণে পরকীয়ায় আসক্ত হচ্ছে প্রবাসীর জীবনসঙ্গী

আগের দিনের রাজা বাদশাহর যুগ থেকে কল্প কাহিনীর মুখরোচক গল্প কিংবা বর্তমান যুগে পর’কী’য়া প্রে’ম শব্দটির সাথে কম বেশী সকলেই পরিচিত।

ঐতিহাসিক রাজতন্ত্রের আমলে রাজা কিংবা রানী পর’কী’য়া প্রে’মের শিকার হয়েছেন। এই ক্ষেত্রে রানীরা ছিলেন এগিয়ে।

হাল আমলেও ঘরের স্ত্রী’দের সংখ্যাই বেশী বলে প্রতিয়মান। পুরুষগণ যে খুব একটা পিছিয়ে তা কিন্তু নয়। নারীদের পর’কী’য়া প্রে’মে জ’ড়িয়ে যাবার বিভিন্ন

কারন থাকলেও পুরষদের বেলায় হিন্দি বা উর্দু ভাষার একটি প্রবাদ অনুপ্রেনার মূল বিষয়। প্রবাদ টি এ রকম “ঘরকা মুরগি ডাল বরাবর”।

তবে দীর্ঘ প্রবাস জীবন চাকুরীর সুবাদে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাওয়ার সুযোগে এবং বিভিন্ন এলাকার মানুষের সাথে মেশার সুযোগে জানা গেছে নানা স’ত্য ঘ’টনা।

এ ছাড়া পত্রিকা পড়ার বয়স থেকে নানা রকম খু’ন রাহা’জানির নেপথ্যে ছিলো পর’কী’য়া প্রে’ম।পর’কিয়া প্রে’ম কি এবং কেন? :

বিবাহিত স্ত্রী’ বা পুরুষ বিপরীত লি’ঙ্গের প্রতি প্রে’ম বন্ধনে আবদ্ধ হলে আম’দের দেশে আভিধানিক ভাষায় পর’কী’য়া বলা হয়।

পাঠকের কাছে নানা কারন থাকতে পারে, আমা’র মতের সাথে একটি কারণের যদি মিল খুঁজে পাওয়া যায় তাহলে আজকের লেখার সার্থকতা।

দীর্ঘ সময় স্বামী থেকে দূরে থাকার কারনে স্ত্রী’রা পর’কী’য়া জ’ড়াতে পারেন। স্বামী থেকে দুরে থাকার কারনে চিঠির যুগে চিঠি

আর ডিজিটাল যুগে মোবাইল ফোনের অ’পেক্ষায় সঙ্গিনী সতী স্ত্রী’রা ভুগেন একাকী’ত্বে। সংসারের টানা পড়েন জ্বালা যন্ত্র’ণার কথা কাউকে জানাতে পারেন না।

সে সুযোগে যদি কোন বন্ধু আবির্ভুত হয় তার জী’বনে স’ম্পর্কে র’ক্তের ভাই বোন ছাড়া যে কেউ হয়ে উঠেন কাছের মানুষ। সে থেকে সূত্র পাত হয় পর’কী’য়ার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here