লি’ভার ন’ষ্ট হয়- মানুষের দেহের প্রধান অঙ্গপ্রত্যঙ্গ গুলোর মধ্যে অন্যতম হল লিভার। দেহের স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনায় লিভারের সুস্থতা অনেক জরুরী।

কিন্তু কিছু বাজে অভ্যাসের কারণে প্রতিনিয়ত মা;রাত্ম;ক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে লিভার।এরই ফলাফল হিসেবে লিভার ড্যামেজের মতো মা;রা;ত্মক সমস্যায় ভুগতে দেখা যায় অনেককেই।

এই অঙ্গটি ন’ষ্ট হওয়ার পিছনে কারণগুলি দেখে নেওয়া যাক দেরি করে ঘুমোতে যাওয়া এবং দেরি করে ঘুম থেকে ওঠা দুটোই লি’ভার ন’ষ্টের কারণ।

এতে শারীরিক সাইকেলের সম্পূর্ণ উল্টোটা ঘটতে থাকেএবং তার মা;রা;ত্মক বাজে প্রভাব পরে লিভারের উপরে।

এতে হঠাৎ করে লিভারের উপরে চাপ বেশি পরে এবং লিভার ড্যামেজ হওয়ার আশংকা থাকে।সকালের খাবার না খাওয়ায় লিভার পক্ষে ক্ষতিকর।

যেহেতু অনেকটা সময় পেট খালি থাকার কারণে অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গের পাশাপাশি খাদ্যের অভাবে কর্মক্ষমতা হারাতে থাকে লিভারও।

অনেক বেশি ঔষধ খেলে লি’ভার ন’ষ্ট হয়৷ বিশেষ করে ব্যথা’নাশক ঔষধের জেরে লিভারের কর্মক্ষমতার হ্রাস পায়ে।

এছাড়াও ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় ক্ষতি হয় লিভারের। এতে করে লিভার ড্যামেজ হয়ে যাওয়ার আশংকা দেখা দেয়।

কেমিক্যাল সমৃদ্ধ যেকোনো কিছুই লিভারের জন্য মা;রা;ত্মক ক্ষ;তিকর। কিন্তু আলসেমি ও মুখের স্বাদের জন্য আম’রা অনেকেই প্রিজারভেটিভ খাবার,

আর্টিফিশিয়াল ফুড কালার, আর্টিফিশিয়াল চিনি ইত্যাদি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলি যা লি’ভার ন’ষ্টের অন্যতম কারণ।

খারাপ তেল ও অ’তিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার লিভারের জন্য মা;রা;ত্মক ক্ষতিকর। একই তেলে বারবার ভাজা খাবার বা পোড়া তেলের খাবার বেশি পরিমাণে খাওয়া হলে লিভার তার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হারাতে থাকে।

অ’তিরিক্ত কাঁচা খাবার খাওয়াও লিভারের জন্য মা;রা;ত্মক ক্ষতিকর। যেমন আপনি যদি খুব বেশি কাঁচা ফলমূল বা

সবজি খেতে থাকেন তাহলে তা হজমের জন্য অ’তিরিক্ত কাজ করতে হয় পরিপাকতন্ত্রের। এর প্রভাব পড়ে লিভারের উপরেও। সুতরাং অ’তিরিক্ত খাবেন না।

অ’তিরিক্ত পরিমাণে ম’দ্য পান করা লি’ভার ন’ষ্টের আরেকটি মূল কারণ। অ্যা;ল;কোহলের ক্ষ;তিকর উপাদান সমূহ লিভারের মা;রা;ত্মক ক্ষ;তির কারণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here