ম’হামা’রি ক’রোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত ১৯৯টি দেশ। সর্বশেষ ত’থ্য অনুযায়ী বিশ্বের ৭ লাখ ৫২ হাজার ৭৪৭ জন মানুষ ক’রোনায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন।

এর মধ্যে মৃ’ত্যু বরণ করেছেন ৩৬ হাজার ২২৬ জন মানুষ। বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়েছে এই ভাই’রাস।

এক্ষেত্রে তারা হন্যে হয়ে খুঁজছিলেন সেই রো’গীকে ক’রোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত প্রথম রো’গীকে। তারা মনে করেন

‘পেশেন্ট জিরো’ রো’গীকে ভালভাবে পরীক্ষা করলে প্রতিরোধের উপায় এবং ভ্যাকসিন বের করা সহজ হবে।

সেখানেও ধরা পড়েনি এই মারণ-ভাই’রাস। ১৬ ডিসেম্বর ওই অঞ্চলে সবচেয়ে বড় উহান ইউনিয়ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান গুইশিয়ান।

আর সেই হাসপাতালেই তাঁকে বলা হয় যে, শ’রীরে কঠিন রো’গ বাসা বাঁধছে।এরপরই ওই হাসপাতালে বাড়তে থাকে রো’গীর সংখ্যা,

যাদের সবার শ’রীরেই একই ধরনের উপসর্গ। গুইশিয়ানের দেখাদেখি ওই হাসপাতালে ছোটেন হুনান মার্কে’টের আরও অনেক মানুষ। এমনকি অনেক ক্রেতাও আ’ক্রান্ত হয়ে পড়েন ওই রো’গে।

ডিসেম্বরের শেষের দিকে ওয়েই গুইশিয়ানকে কোয়ারেনটাইনে রাখা হয়। তাঁর শ’রীরে মেলে COVID-19 ভাই’রাসের উপস্থিতি মেলে।

সে সময় ডাক্তারদের ধারণা, উহানের ওই সামুদ্রিক খাবার বিক্রির মার্কেট থেকেই ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাই’রাস।

উহান মিউনিসিপ্যাল হেলথ কমিশনের তরফে নিশ্চিত করে বলা হয়েছে যে, প্রথম ক’রোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হয়েছিলেন যে ২৭ জন রো’গী তাঁদের মধ্যে প্রথমেই ছিলেন ওয়েই গুইশিয়ান।

পুরুষদের প্রথম চাহিদা কী থাকে ফাঁস করলেন যৌনকর্মী

যৌনকর্মী শব্দটির সাথে কমবেশি আমরা সবাই পরিচিত। এই পেশায় কেউই মখে আসে না। কাউকে জোড় করে এই পেশায় আনা হয়। আবার কেউ চরম দারিদ্রতার শিকার হয়ে এই পেশায় আসতে বাধ্য হন।

যাইহোক এই পেশার মানুষদের কাছেও আসে আবার সমাজের বিশেষ একটা শ্রেণীর পুরুষরা।যৌনকর্মীদের কাছে এসে প্রথমেই পুরুষদের কী চাহিদা থাকে তা হয়ত অনেকেই জানেন না।

সেকথাই এবার জানালেন এক যৌনকর্মী।যৌনপল্লি থেকে বেরিয়ে আসা এক নারী নিজের সেই সব দিনের অভিজ্ঞতার কথা জানালেন।

জানালেন কী ধরনের খদ্দেরের দেখা মিলেছিল।এক শনিবার রাতের ঘটনা। চামড়ার বুট পায়ে দাঁড়িয়েছিলেন ওই নারী যৌনকর্মী।

আচমকাই এক ব্যক্তি এসে তাঁর বুটটি চাটতে থাকেন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই মহিলার হাতে টাকা ধরিয়ে সেখান থেকে বেরিয়ে যান ওই ব্যক্তি।

একবার এক ব্যক্তির সঙ্গে যে ঘরে সঙ্গমে লিপ্ত হয়েছিলেন ওই মহিলা, সেই ঘরে একটি ফুটো করে রেখেছিলেন ওই ব্যক্তি। যাতে বাইরে থেকে তাঁর বন্ধুরা অনায়াসে মিলনের সাক্ষী থাকতে পারেন।

ডিক কে নামের এক ব্যক্তি আবার একবার নিজের বিজনেস ট্রিপে ওই মহিলাকে সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু কখনওই তাঁর সঙ্গে সঙ্গম করেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here