এক কোয়া রসুন হারানো যৌ-ব-নকে কীভাবে ফিরিয়ে দেবে তা জানিয়ে দিয়েছে ভারতীয় এক গণমাধ্যম। আসুন জেনে নিই সে সম্পর্কে…শুধু খাবার নয়, প্রাচীনকাল থেকেই রসুন ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

বিশ্বের প্রায় সবখানেই বিভিন্ন অসুখ থেকে নিরাময়ে রসুনকে ব্যবহার করা হয়।কিন্তু জানেন কি, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখার পাশাপাশি বয়স ধরে রাখার জন্যও রসুনের কোনো বিকল্প নেই।

১. অনেকের ত্বকেই লাল-লাল দাগ দেখা যায়। দানা দানা আকারে বেরোয় ব়্যাশ। হাত, কনুই এমনকি মুখেও মাঝে মাঝে এই দাগ দেখা যায় অনেকের। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুনের জুড়ি মেলা ভার।

২. এক কোয়া রসুন এবং অর্ধেক টমেটো দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। ওই মিশ্রনটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন গোটা মুখ। ট্যান উঠে গিয়ে দেখবেন চকচক করছে আপনার ত্বক।

অলিভ অয়েলের সঙ্গে রসুনের রস মিশিয়ে কয়েকদিন ব্যবহার করলেই মিলবে ফল।৪. ব্রণের সমস্যায় ভোগেন অধিকাংশ নারী।

এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য নানা রকম পদ্ধতি অবলম্বন করেন তারা। কিন্তু খুব অল্প সময়ে ব্রণ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য রসুনের কোনো বিকল্প নেই।

এক কোয়া রসুনের রস ব্রণের উপর লাগিয়ে পাঁচ মিনিট রেখে তা ধুয়ে ফেলুন। কয়েকদিন পরে ফলাফল দেখলে চমকে যাবেন আপনি।

৫. এ তো গেল ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুনের ব্যবহার। কিন্তু জানেন, শুধু ত্বকের সমস্যাই নয়, হারানো যৌ-ব-নকে ফিরিয়ে দিতে পারে এক কোয়া রসুন।

মধু এবং লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে এক কোয়া করে রসুন খান। দেখবেন, বয়সের কোঠা ৪০ পেরোলও, আপনাকে দেখলে মনে হবে বছর কুড়ির তন্বী।

আরো পড়ুন: এবার বোরকা পরে আসায় কলেজে ঢুকতে দেয়া হয়নি বেশ কয়েকজন মুসলিম কলেজছাত্রীকে। গত বুধবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ শহরের এসআরকে কলেজে এই ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম খবরে বলা হয়, ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ শহরের এসআরকে কলেজ কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে,

বোরকা পরে কলেজে প্রবেশের কোনো নিয়ম নেই। কারণ বোরকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোনো ইউনিফর্ম নয়।

অভিযুক্ত এসআরকে কলেজের প্রিন্সিপাল প্রভাস্কর রাই জানিয়েছেন, এটা একটা পুরনো নিয়ম যে, কলেজে প্রবেশ করতে হলে

আইডি কার্ড ও ইউনিফর্ম পরে আসতে হবে। কিন্তু আগের কর্তৃপক্ষ এই নিয়ম কখনো মানেননি।সেই পুরনো নিয়ম বর্তমানে কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গত ১১ সেপ্টেম্বরের পর থেকে কলেজের সকল ছাত্রীকে আইডি কার্ড ও ইউনিফর্ম পরে কলেজে আসাটা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কলেজের ড্রেস কোডের মধ্যে বোরকা পড়ে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here