পশ্চিম কিংবা মধ্যপ্রাচ্যে অনেক তারকাই নানা ধর্ম থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন বলে খবর শোনা যায় প্রায়ই।

তবে এবার ইসলাম থেকে ইহুদি ধর্ম গ্রহণ করে হৈচৈ ফে’লে দিলেন কুয়েতি গায়িকা বাসমা-আল-কুয়েতি।সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ভিডিও শেয়ার করে

তিনি নিজেই তার ধর্মান্তরিত হওয়ার খবরটি প্রকাশ্যে আনেন।বুধবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাসমা-আল-কুয়েতির পোস্ট করা ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘প্রথমেই স’ন্ত্রাস এবং ভণ্ডামির প্ররোচণায়

চলতে থাকা এক ধর্ম থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে আসতে পেরে খুব আ’নন্দবোধ করছি। আপনারা সকলেই জানেন আমার ইহুদি ধর্ম গ্রহণ করার কথা।

সবারই নিজের একটি চিন্তাশ’ক্তির জায়গা রয়েছে। দেশ নিয়ে বললে, আমি এর আগেও কুয়েতের রাজতন্ত্র নিয়ে প্রকাশ্যে নি’ন্দা করেছি।

এমনকি আমাদের দেশের সাথে ইসরায়েলের সম্প’র্ক স্থাপনে অস্বীকার করার ব্যপারটিও ঘৃণার চোখে দেখি।

প্রস’ঙ্গত, কুয়েতি মায়ের কাছে বড় হওয়া বাসমা জ’ন্মসুত্রেও একজন কুয়েতের নাগরিক। কিন্তু অনেকর মতে নাগরিক হিসেবে

তিনি ইরাকের জাতীয় পরিচয়পত্র বহন করেন। তবে একটি সুত্র জানিয়েছে, বাসমা বর্তমানে কুয়েত স’রকারের কড়া নজরদাড়িতে রয়েছেন।

তার টুইট একাউন্টসহ সবকিছুতেই খেয়াল রাখা হচ্ছে। বাসমার কারণে জনগণ বিভ্রান্ত হলে শিগগিরই তার বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফোনে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ, বাবা গ্রেফতার

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় নিজের আট বছরের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. ফারুক ব্যাপারী ভোলা (৫৫) নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৫ বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক করে ঢাকায় শিশুটির

মায়ের সঙ্গে ফারুক ব্যাপারীর বিয়ে হয়। বিয়ের চার বছর পর তারা শরীয়তপুরে চলে যান। বিবাহিত জীবনে তাদের ১১ বছরের এক ছেলে ও আট বছরের এক মেয়ে আছে।

অভাবের সংসারের হাল ধরতে শিশুর মা ২০১৮ সালে সৌদি আরব যান। বর্তমানে তিনি সৌদি আরবে আছেন। সেই সুবাদে মো. ফারুক ব্যাপারী ছেলে ও

মেয়েদের নিয়ে শরীয়তপুর সদর উপজেলার নীলকান্দি এলাকার হারুন তালুকদারের ভাড়া বাসায় থাকেন। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি রাতে

মেয়েকে মোবাইল ফোনে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। এর আগেও তাকে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ রয়েছ।

ঘটনা কাউকে না বলার জন্য মেয়েকে হুমকি দেন বাবা ফারুক ব্যাপারী। ১৫ ফেব্রুয়ারি শিশুটি তার খালাকে ঘটনা খুলে বলে।

পরে ১৭ ফেব্রুয়ারি ওই শিশুকে নিয়ে খালা পালং মডেল থানায় এসে অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here