এলাকাবাসী মিলে বিয়ে দিলেন দৃষ্টি ও বাকপ্রতিব’ন্ধী দুই ব্যক্তিকে। বরিশাল নগরীর পলা’শপুর গ্রচ্ছগ্রামে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বর-কনেকে বাড়ি নিয়ে আসা হয় ঘোড়ার গাড়িতে করে।

সোমবার দুপুরে ছিল বর-কনের গায়ে হলুদ। চাঁ’দা তুলে অ’তিথি আপ্যায়ন থেকে শুরু করে সকল আয়োজন করা হয়। আ’নন্দে মাতেন স্থানীয়রা। বর দৃষ্টিপ্রতিব’ন্ধী কালাম বেপারী (২২) এবং কনে সুমা আক্তার (১৮) শ্রবণ ও বাকপ্রতিব’ন্ধী।

বর কালামের গ্রামের বাড়ি বাকেরগঞ্জের কালিগঞ্জ গ্রামে। মা-বাবা নেই। তারা দুই ভাই। কালাম ছোট। বড় ভাই আবদুস সালামও বুদ্ধিপ্রতিব’ন্ধী।

শ্র’মিকের কাজ করে যা আয় করেন, তা দিয়ে পলা’শপুরের গুচ্ছগ্রামে ছোট্ট একটি খুপরি ভাড়া করে থাকেন। আর কনে সুমা’র বাবা বাবুল পালওয়ান। তিনি রিকশা চালান। দুই মে’য়ে, এক ছে’লে নিয়ে পাঁচজনের সংসার চলছে টেনেটুনে।

বর-কনের বাড়ি পাশাপাশি হলেও ঘোড়ার গাড়িতে বর-কনেকে পুরো এলাকা ঘোরানো হয়। এ সময় উৎসুক লোকজন রাস্তার দুই পাশে দাঁড়িয়ে শুভেচ্ছা জানান বরকনেকে।

বিয়ের জন্য এলাকার ২৫ হাজার টাকা চাঁ’দা তুলে বর-কনের পোশাক, আপ্যায়ন ব্যয় থেকে শুরু করে সবকিছু করা হয়।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর কেফায়েত হোসেনও ছিলেন এই উদ্যোগে। তিনি বিয়ের উপহার হিসেবে বরকে হুইলচেয়ার দেন।

তবে বিয়ের পর কালাম কিছুটা চিন্তিত হয়ে পড়েছেন সংসার চা’লানো নিয়ে। এ জন্য বিত্তবানদের সাহায্য চেয়েছেন।

তবে নববধূ সুমা স্বা’মীর এ চিন্তার বি’ষয়ে কিছু বুঝতে পারছে না। বিয়েতে খুশির বি’ষয়টি তার পুরো চেহারায় ফুটে উঠেছে।

মমতাকে নিয়ে বি’স্ফো’রক মন্তব্য শ্রাবন্তীর

ভা’রতের শাসক দল বিজেপিতে যোগদান করেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে নিয়ে বি’স্ফো’রক মন্তব্য করে বসলেন টালিউডের জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী শ্রাবন্তী।

রোববার এক টুইটবার্তায় অ’ভিনেত্রী দাবি করেন, ‘নিজেদের টিকিয়ে রাখতে সবসময়ই ক্ষ’মতার অ’পব্যবহার করে থাকেন’ মমতা ও অ’ভিষেক!

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, সম্প্রতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শ্রাবন্তী। ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটের আগেও এ অ’ভিনেত্রীর গেরুয়া শি’বিরে নাম লেখানোর গুঞ্জন উঠেছিল। অবশেষে একুশের বিধানসভা ভোটের আগে পদ্মশি’বিরে শ্রাবন্তী।

এ নায়িকার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। এর মধ্যেই রাজনীতিতে যোগ দিয়ে সেই বিতর্ককে আরও খানিকটা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

বিজেপিতে নাম লেখানোর পর থেকেই নানা সময়ে শাসক দলের নীতি-আদর্শ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন শ্রাবন্তী। তবে এতদিন সরাসরি মমতা ব্যানার্জির বি’রুদ্ধে ক্ষো’ভ প্রকাশ না করলেও গতকাল রোববার তাকে আ’ক্রমণ করে বসেন শ্রাবন্তী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্রিগেড সমাবেশের দিন টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও তার ভাইপো অ’ভিষেক ব্যানার্জিকে উদ্দেশ্য করে শ্রাবন্তী লেখেন—‘বেশিরভাগ নেতা, মন্ত্রী ও সম’র্থক তৃণমূ’ল থেকে বেরিয়ে আসছে পিসি ও ভাইপোর রাজনীতির জন্য। নিজেদের টিকিয়ে রাখতে সবসময়ই ক্ষ’মতার অ’পব্যবহার করে থাকেন তারা দুজন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here