স্কুল খোলার প্রথম এক মাস পর পঞ্চম শ্রেণির স’ঙ্গে প্রাথমিক পর্যায়ে সব শিক্ষার্থীকে ক্লাসে ফেরানোর পরিকল্পনা করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা ম’ন্ত্রণালয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এমন ত’থ্য জানা গেছে।

শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের সদস্য (প্রাথমিক শিক্ষাক্রম) প্রফেসর ড. এ কে এম রিয়াজুল হাসান বলেন, ৩০ মার্চ স্কুল খোলার পর প্রথম এক মাস পর্যবেক্ষণ করবো।

যদি সব কিছু স্বাভাবিক থাকে তবে পঞ্চম শ্রেণির মতো অন্যান্য ক্লাসে বাচ্চাদের প্রতিদিন ক্লাসে আনার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে সব কিছু নির্ভর করবে ক’রোনা পরিস্থিতির ও’পর।

এনসিটিবির কর্মকর্তারা বলছেন, প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের জন্য পরিমার্জিত একটি সিলেবাস প্রকাশ করা হয়েছে। সে সিলেবাস অনুযায়ী কিভাবে পড়াতে হবে, তার জন্য একটি শিক্ষক নির্দেশিকা প্রণয়ন করেছে এনসিটিবি ও জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ)।

দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিক সময়ের মতো সপ্তাহে ছয়দিন ক্লাস করবে। নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ক্লাস করবে সপ্তাহে দুদিন আর বাকিরা একদিন করে।

শিক্ষক নির্দেশিকায় একজন শিক্ষক ক’রোনা পরবর্তী সময়ের কীভাবে ক্লাসে পড়াবেন তার একটি গাইডলাইন থাকবে। সেখানে বি’ষয় ভিত্তিক স্পষ্ট করে বলে দেওয়া হবে শিক্ষক ক্লাসে কোন অধ্যায়গুলো পড়াবেন। একই স’ঙ্গে একটি সাবজেক্টের (বি’ষয়) বেশি প্রয়োজনীয় নয় এমন বি’ষয়গুলো না পড়িয়ে একটি অধ্যায়ের স’ঙ্গে সম্প’র্কিত বি’ষয়গুলো একস’ঙ্গে পড়ানোর কথা বলা হবে।

২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে স’চিবালয়ে এক বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, ক’রোনার কারণে বন্ধ থাকার পর সব স্তুরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৩০ মার্চ খুলবে। তবে প্রাক-প্রাথমিকের ছুটি অব্যাহত থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here