যার সাথে বিয়ে হওয়ার কথা সে নেই, পাশে বসে আছে তার ভাবি! নাটোরের গুরুদাসপুরে জাঁকজমক আয়োজনের মধ্য দিয়ে চলছিল বিয়ের অনুষ্ঠান।

আ,ত্মীয় ও স্বজনদের আ’নন্দ যেন ভর ধরছিল না। কিন্তু সে আ’নন্দে পানি ঢেলে দিলো প্রশাসন।শুক্রবার দুপুরে উপজে’লার বিয়াঘাট ইউনিয়নের যোগেন্দ্রন,গর গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।

এদিকে খবর পেয়ে বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানে হাজির হলেন গু,রুদাসপুর সহকারী কমিশনার ও উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ভা’রপ্রা,প্ত) মোহাম্ম’দ নাহিদ

হাসান খান। প্রশাসনের গাড়ি দেখে মুহূর্তের মধ্যেই বদলে গেলো কনে। শুধু তাই নয় যে ই’মাম কবুল পড়াবেন তিনি এসি, ল্যান্ডকে দেখেই ভোঁ দৌড়। কনের জায়গায় কনের ভাবিকে বসিয়ে শুরু হয় নাট’কী’য় অ’ভিনয়।

শুক্রবার দুপুরে উপজে’লার বিয়াঘাট ইউনিয়নের যোগেন্দ্রনগর গ্রামে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া ১৬ বছরের এক ছা’ত্রীর বাল্য বিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে জানিয়ে ফোন

করা হয় উপজে’লা নির্বাহী অফিসার তমাল হোসেনের কাছে।পরে তার খবরে উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ভা’রপ্রা’প্ত) মোহাম্ম’দ নাহিদ হাসান খান ওই

বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে কনেকে না পেয়ে কনে সেজে বসে থাকা কনের ভাবি ও তার ভাইকে আ’ট’ক করে নিয়ে আসে। পরে তাদের ৫ হাজার টাকা জ’রিমানা করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here