আইপি টিভিসহ অনলাইন সম্প্রচার তদারকিতে উইং হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ত’থ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুরে স’চিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ত’থ্য ম’ন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘ত’থ্য ও সম্প্রচার ম’ন্ত্রণালয়’ হয়েছে। নাম পরিবর্তন করে সোমবার (১৫ মার্চ) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

ত’থ্য ও সম্প্রচার নিয়ে আলাদা দুটি বিভাগ হবে কি-না জানতে চাইলে ত’থ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, ‘না, আলাদা বিভাগের প্রয়োজন নেই।

তবে আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ অনলাইনে আরও নিবিড়ভাবে যাতে সেবা দিতে ও কাজ করতে পারি সেজন্য আমাদের একটা আলাদা উইং করা হচ্ছে। আগে আলাদা কোনো সেল ছিল না। এখন আমাদের মিডিয়া উইং সেটা দেখে। এজন্য সেখানে আলাদা আরও একটা উইং করার পরিকল্পনা নিয়েছি।

ম’ন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তনের বি’ষয়ে তিনি বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে ত’থ্য ম’ন্ত্রণালয় ত’থ্য প্রদান ও স’রকারের কাজগুলো জনগণের সামনে তুলে ধরা ছাড়াও সম্প্রচারের কাজটি দেখে আসছে। সম্প্রচারের কাজটি ত’থ্য ম’ন্ত্রণালয় করে থাকে।

এজন্য আমরা চাচ্ছিলাম যে, এই ম’ন্ত্রণালয়ের নাম কাজের স’ঙ্গে স’ঙ্গতি পূর্ণ হোক। সেই কারণে আমরা নাম পরিবর্তন করে ‘ত’থ্য ও সম্প্রচার ম’ন্ত্রণালয়’ করার জন্য প্রস্তাব পেশ করেছিলাম।’

বিজ্ঞাপন

নাম পরিবর্তনের কারণে কাজের ক্ষেত্র বাড়বে কি-না জানতে চাইলে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘কাজের ক্ষেত্র যেমন আছে তেমনি থাকবে। তবে কাজের ক্ষেত্রে যে নানা রকমের বিভ্রান্তি হয় সেটা এখন আর থাকবে না।’

ক’রোনা সং’ক্র’মণ পরিস্থিতি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে ক’রোনা শুরু থেকে কখনো লকডাউন দেয়া হয়নি। স’রকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ক’রোনা যখন ব্যাপক পরিমাণে ছিল তখনও লকডাউন দেয়া হয়নি।

সুতরাং ভবি’ষ্যতে সেটি দেয়ার কারণ আছে বলে আমি মনে করি না। যেটির প্রয়োজন আছে সেটা হলো মানুষের মনের ভীতি চলে গেছে, টিকা নেয়ার পর মনে করছে ক’রোনা চলে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়া মানুষ যেভাবে স্বাস্থ্য সচেতনতা অবলম্বন করছিল, এখন সেটা আগের মতো করছে না। এজন্য আমি মনে করি, এখন আমরা যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছি না সেটা ভু’ল হচ্ছে।

এখন আমাদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা প্রয়োজন এবং যতদূর সম্ভব জনসভা এড়ানো প্রয়োজন। এগুলো করলেই ক’রোনা অনেক নি’য়ন্ত্রণে চলে আসবে।’

এ সময় ত’থ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান ও স’চিব খাজা মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here