ডিএমপির ও আইজিপির পক্ষ থেকে ১৭-২৬ মার্চ সভা-সমাবেশ না করার অনুরোধের সমালোচনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটার্স দিয়েছে ডাকসু সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর!

পাঠকদের জন্য সাবেক ভিপি নুরুল হক নূরের ফেসবুক স্ট্যাটার্সটি হুবহু তুলে ধরা হলো: স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ১৭-২৬ মার্চ বিদেশী অতিথিরা আসবে।

তাই রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি না দিতে বলেছে ডিএমপি কর্তৃপক্ষ। যদি কেউ কর্মসূচি দেয় তারা রা’ষ্ট্রদ্রো’হি হিসেবে বিবেচিত হবে। প্রথমত, সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং করা নাগরিকদের সাংবিধানিক অধিকার।

তাই সংবিধান বি’রোধী কাজ করার অধিকার ডিএমপি কর্তৃপক্ষের নেই। দ্বিতীয়ত,মুক্তিযু’দ্ধের চেতনার গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র বির্নিমানের আ’কাঙ্ক্ষা’কে ধূ’লিসাৎ করে জনগণের ভোটাধিকার হরণের মাধ্যমে দেশে স্বৈ’রশাসন কা’য়েম করে ৩০ লক্ষ শহীদ,

তাহলে তাদের ভবি’ষ্যৎ করুণ পরিণতির জন্য অগ্রিম সমবেদনা। কারণ, পৃথিবীর কোন দেশেই স্বৈ’রশাসন খুব বেশীদিন টিকেনি, নি’র্ম’ম-নি’ষ্ঠুর পরিণতি হয়েছে।

১৬-৩০ মার্চ ছাত্রলীগ,যুবলীগ, আওয়ামীলীগের নতুন দোকান ‘ মাতৃভূমি সাংস্কৃতিক সং’সদ ‘ নামে শাহবাগে কর্মসূচি পালন করবে। ডিএমপি কর্তৃপক্ষ কি এই রাষ্ট্রদ্রো’হী দোকানদারদের বি’রুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখাতে পারবে? “গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈ’রাচার নি’পাত যাক। স্বৈ’রাচারের বি’রুদ্ধে জেগে ওঠো বাংলাদেশ”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here