দেশে ক’রোনার ঊর্ধ্বগতি নি’য়ন্ত্রণ করতে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা বাণিজ্য ও কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন বাংলাদেশ পু’লিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

আজ বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) পু’লিশ অডিটরিয়ামে ক’রোনা সচেতনতা নিয়ে ডাকা এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন পু’লিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

আইজিপি বলেন, ২১ মার্চ থেকে বাংলাদেশ পু’লিশের উদ্যোগে মাস্ক পরা উদ্বুদ্ধকরণ কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। পু’লিশের এই কার্যক্রমের স্লোগান- ‘মাস্ক পরা অভ্যেস,

কোভিড মুক্ত বাংলাদেশ। দেশবাসীকে অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ক’রোনার যে স্বাস্থ্যবিধি রয়েছে সেগুলো অবশ্যই মানতে হবে। বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি ক’ঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। পু’লিশ জনগণের স’ঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঝুঁ’কি

ক’রোনা ভ্যাকসিন গ্রহণে উদ্বুদ্ধকরণ; সচেতনতামূ’লক মাইকিং, লিফলেট ও পোস্টার বিতরণ, সামাজিক ও শা’রীরিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণে ভূমিকা রাখা;

ক’রোনায় মৃ’ত্যুবরণকারীদের দাফন, পু’লিশের অব্যবহৃত স্থাপনা আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রূপান্তর। ইমিগ্রেশন পু’লিশের মাধ্যমে বিদেশ থেকে আগত ব্যক্তিদের শনাক্তকরণ ও কোয়ারেন্টাইনে প্রেরণ, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এর মাধ্যমে ক’রোনা সংক্রান্ত আগত কলের সাড়াদান,

পু’লিশ হাসপাতালে পিসিআর ল্যাব স্থাপন করে কোভিড পরীক্ষা ও চিকিৎসা প্রদান, পু’লিশ হাসপাতালে পু’লিশ ব্যতীত অন্যান্য স’রকারি প্রতিষ্ঠান ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান।

বেনজীর আহমেদ বলেন, যেকোনও সভা-সমাবেশ পরিহার করা গেলে ভালো। তবে যদি করতেই হয় তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে করতে হবে। বঙ্গববন্ধুর জ’ন্মশতবার্ষিকীতে অতিথি ছিল মাত্র ৫০০জন।

সেখানে ক’ঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়েছে। আইজিপি আরও বলেন, যেকোনও মূ’ল্যে মাস্ক বিহীন বে’পরোয়া চলাফেরা নি’য়ন্ত্রণ করতে হবে। এটা না করতে পারলে অবস্থা অনাকাঙিক্ষ’ত পরিস্থিতির দিকে মোড় নিতে পারে; যা কাম্য নয়।

গো’পনে প্রেম করছেন কিয়ারা আদভানি!

কিয়ারা আদভানি ও সিদ্ধার্থ মালহোত্রা- একে অ’পরের স’ঙ্গে স’ম্পর্কে রয়েছেন। এ কথা এখন বলিউডে ওপেন সিক্রেট। যদিও নিজেদের স’ম্পর্কের বি’ষয়ে মুখ বন্ধ রেখেছেন কিয়ারা এবং সিদ্ধার্থ দুজনেই।

সম্প্রতি, ফিল্মফেয়ার ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারেও প্রে’ম নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় অ’ভিনেত্রীকে। যদিও তিনি বিশেষ কিছু বলতে চাননি। তবে তাঁর কথাতেই মিলেছে স্পষ্ট ইঙ্গিত। শেষ কবে ডেটে গিয়েছিলেন? এটা স্পষ্ট করেছেন। কিয়ারা বলেন, ‘আমি এ বছরই ডেটে গিয়েছিলাম। আর সেটা দুই মাসের জন্য’। এবার অঙ্কটা আপনারা নিজেরাই কষে নিন।

প্রস’ঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারিতেই সিদ্ধার্থ মালহোত্রার বাড়ির সামনে একাধিকবার কিয়ারাকে দেখা গিয়েছে। করণ জোহরের বাড়ির পার্টিতেও তাঁদের একস’ঙ্গে ঢুকতে দেখা যায়। এ বছরই শুরুর দিকে মালদ্বীপে ছুটি কা’টাতেও গিয়েছিলেন সিদ্ধার্থ-কিয়ারা। তাঁদের একস’ঙ্গে মুম্বাই বিমানবন্দরে দেখা যায়। এমনকি দুজনের ইনস্টাগ্রামেই একই সময়ে মালদ্বীপে ছুটি কা’টানোর ছবি উঠে আসে। যদিও দুজনের কেউই একে অ’পরের স’ঙ্গে ছবি পোস্ট করেননি।

২০১৪ সালে ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন কিয়ারা আদভানি। তবে এম এস ধোনি : দ্য আনটোল্ড স্টোরির হাত ধরেই পরিচিতি পান কিয়ারা। ‘শেরশাহ’ ছবিতে প্রথমবার একস’ঙ্গে দেখা যাবে সিদ্ধার্থ-কিয়ারাকে। প্রস’ঙ্গত, কিয়ারার স’ঙ্গে স’ম্পর্কের আগে একসময় আলিয়া ভাটের স’ঙ্গে জমিয়ে প্রে’ম করতেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। পরে সে স’ম্পর্ক ভে’ঙে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here